, United States

আজকের নামাজের সময়সূচী

রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১

ফজর

4:44 am

ফজরের ওয়াক্ত:

ফজর নামাজের সময় শুরু হয় সুবহি সাদিক হওয়ার সাথে সাথে এবং সূর্য উদয়ের পূর্ব পর্যন্ত এর সময় থাকে। রাতের শেষে আকাশের পূর্ব দিগন্তে লম্বা আকৃতির যে আলোর রেখা দেখা যায় তাকেই বলে সুবহে সাদিক।

রাকাত:

ফজরের নামাজ দুই রাকাত সুন্নত ও দুই রাকাত ফরজ। দুই রাকাত সুন্নত নামাজের পর ফরজ নামাজ পড়তে হয়।

  • ২ রাকাত সুন্নত।
  • ২ রাকাত ফরজ।

জোহর

1:41 pm

জোহরের ওয়াক্ত:

দুপুরের সূর্য পশ্চিম আকাশে হেলে পড়লেই জোহরের ওয়াক্ত শুরু হয়। ছায়া আসলি বাদে কোনো বস্তুর ছায়া দ্বিগুন হওয়া পর্যন্ত এর সময় থাকে। কোনো বস্তুর ঠিক দুপুরের সময় যে ক্ষুদ্র ছায়া থাকে তাকেই বলে ছায়া আসলি।

রাকাত:

জোহরের নামাজ চার রাকাত সুন্নত, চার রাকাত ফরজ ও এরপর দুই রাকাত সুন্নত এবং কেউ কেউ পরে দুই রাকআত নফল নামাজ আদায় করে। তবে মুসাফির অবস্থায় থাকলে চার রাকাত ফরজকে সংক্ষিপ্ত করে দুই রাকাত পড়তে পারবে ও সুন্নত আদায় না করলে হবে। শুক্রবার জোহরের পরিবর্তে জুমার নামাজ আদায় করা হয়। জুমা ও যোহরের সময় শুরু ও শেষ হওয়ার নিয়ম একই।

  • ৪ রাকাত সুন্নত।
  • ৪ রাকাত ফরজ।
  • ২ রাকাত সুন্নত।
  • * ২ রাকাত নফল।
* - বাধ্যতামূলক নয়

জুমার নামাজ:

জুমার নামাজ দুই রাকাত ফরজ। এছাড়া ফরজ নামাজের পূর্বে চার রাকাত কাবলাল জুমআ এবং পরে চার রাকাত বা'দাল জুমআ (সুন্নাত নামাজ) আদায় করতে হয়। কেউ চাইলে এসময় অতিরিক্ত নফল নামাজ আদায় করতে পারে। তবে এসকল নফল নামাজ জুমার অংশ হিসেবে পড়া হয় না।

জুমার নামাজ জামাতের সাথে আদায় করা আবশ্যিক এবং তা একাকী আদায় করার নিয়ম নেই। কুরআনে জুমার নামাজের সময় হলে কাজ বন্ধ করে নামাজের জন্য মসজিদে যাওয়ার প্রতি তাগিদ দেয়া হয়েছে। তবে কোনো ব্যক্তি যদি কারণবশত (যেমন খুব অসুস্থ ব্যক্তি) জুমা আদায় করতে না পারে তবে তার ক্ষেত্রে জোহরের নামাজ আদায় করা নিয়ম। তাছাড়া কিছু ক্ষেত্রে সুস্থ ব্যক্তির উপর, যেমন মুসাফির অবস্থায় জুমার আবশ্যকতা থাকে না এবং সেক্ষেত্রে জোহরের নামাজ আদায় করলে তা গ্রহণীয় হয়। তবে মুসাফির চাইলে জুমা আদায় করতে পারে।

আসর

6:44 pm

আসরের ওয়াক্ত:

যোহরের সময় শেষ হলেই আসরের সময় শুরু হয় এবং সূর্যাস্তের পূর্ব পর্যন্ত বিদ্যমান থাকে। তবে সূর্যের রং হলুদ হওয়ার আগেই আসর সালাত আদায় করা উচিত।

রাকাত:

আসরের নামাজ চার রাকাত ফরজ। কেউ কেউ ফরজের পূর্বে চার রাকাত সুন্নাত নামাজ পড়ে থাকে। তবে মুসাফির অবস্থায় থাকলে চার রাকাত ফরজকে সংক্ষিপ্ত করে দুই রাকাত পড়তে পারবে।

  • * ৪ রাকাত সুন্নত।
  • ৪ রাকাত ফরজ।
* - বাধ্যতামূলক নয়

জুমার দিনে আসরের নামাজের পর একটি গুরুত্বপূর্ণ আমল:

হজরত আবু হুরাইরা (রা.) হতে বর্ণিত। রাসূল পাক (সা.) ইরশাদ করেন, যে ব্যক্তি জুমার দিন আসরের নামাজের পর না উঠে ওই স্থানে বসা অবস্থায় ৮০ বার নিম্নে উল্লেখিত দরুদ শরীফ পাঠ করবে, তার ৮০ বছরের গুনাহ মাফ হবে এবং ৮০ বছরের নফল ইবাদতের সওয়াব তার আমল নামায় লেখা হবে।

দোয়াটি হলো- আল্লাহুম্মা সাল্লি আলা মুহাম্মাদিনিন নাবিয়্যিল উম্মিয়্যি ওয়া আলা আলিহি ওয়াসাল্লিম তাসলিমা।

মাগরিব

8:50 pm

মাগরিবের ওয়াক্ত:

সূর্যাস্তের পর থেকে মাগরিবের সময় শুরু হয় এবং পশ্চিম আকাশে যতক্ষন লালিমা বিদ্যমান থাকে ততক্ষণ সময় থাকে।

রাকাত:

মাগরিবে নামাজ প্রথম তিন রাকাত ফরজ। তারপর দুই রাকাত সুন্নাত। কেউ কেউ সুন্নাতের পর দুই রাকাত নফল পড়ে থাকে। তবে ব্যক্তি মুসাফির অবস্থায় থাকলে শুধুমাত্র তিন রাকাত ফরজ আদায় করতে পারবে।

  • ৩ রাকাত ফরজ।
  • ২ রাকাত সুন্নাত।
  • * ২ রাকাত নফল।
* - বাধ্যতামূলক নয়

ইশা

10:35 pm

ইশার ওয়াক্ত:

মাগরিবের সময় শেষ হলেই ইশার ওয়াক্ত শুরু হয় এবং সুবহি সাদিকের পূর্ব পর্যন্ত বিদ্যমান থাকে। তবে মধ্য রাতের আগেই এই নামাজ আদায় করা উত্তম।

রাকাত:

ইশার নামাজে প্রথমে অনেকেই চার রাকাত সুন্নাত পড়ে থাকেন, তবে এটি ঐচ্ছিক নামাজ (সুন্নাতে যায়েদা বা গায়েরে সুন্নাত এ মুয়াক্কাদাহ ও বলা হয়)। এটিও পড়তে উৎসাহিত করা হয় এবং সময় থাকলে পড়া উচিৎ, তবে না পড়লে গুনাহ হবে না।

এর পর ইশার নামাজে চার রাকাত ফরজ এবং তারপর দুই রাকাত সুন্নাত। অতপর তিন রাকাত বিতরের নামাজ পড়াতে হয়। বিতর পড়া ওয়াজিব। অনেকে বিতরের পর দুই রাকাত নফলও নামাজ পড়ে থাকে।

মুসাফির অবস্থায় থাকলে ইসলামের বিধান অনুযায়ী ইশা'র চার রাকাত ফরজকে সংক্ষিপ্ত করে দুই রাকাত আদায় করা যায় এবং তারপর শুধুমাত্র বিতরের তিন রাকাত আদায় নামাজ করতে হয়।

  • * ৪ রাকাত সুন্নত।
  • ৪ রাকাত ফরজ।
  • ২ রাকাত সুন্নাত।
  • ৩ রাকাত বিতর ।
  • * ২ রাকাত নফল।
* - বাধ্যতামূলক নয়