করোনাকালে শ্বাসকষ্ট হলে মেনে চলুন কয়েকটি বিষয়

Img

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিশ্বজুড়ে প্রতিদিনই হু হু করে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। হাসপাতালে জায়গা মিলছে না, আবার মিললেও রয়েছে অক্সিজেন সংকট। এই পরিস্থিতিতে সবাইকে বাড়িতে থাকার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। যাদের শ্বাসকষ্টের সমস্যা তারা কী করবেন বা এই সময়ে তাদের কী করা উচিত এ বিষয়টি ভাবিয়ে তুলছে।

চিকিৎসকরা বলছেন, শ্বাসকষ্ট হলেও সবার হাসপাতালে যাওয়ার দরকার নেই। সাথে অক্সিমিটার রাখেন। অক্সিজেনের মাত্রা যদি নব্বই এর নিচে যেতে থাকে তবে সেক্ষেত্রে হাসপাতালে যেতে হবে। আর বাকিরা বাড়িতে কিছু বিষয় মেনে চললে হবে। সবার আগে যে বিষয়টি দরকার তা হলো আতঙ্কিত হওয়া যাবে না এবং আতঙ্ক ছড়ানো যাবে না।

১. এক সমীক্ষা বলছে শরীরে অক্সিজেন লেভেল কমে গেলে গ্যাস, মোমবাতি, ফায়ারপ্লেস, বিদ্যুৎ বা হিটারের কাছাকাছি যাওয়া উচিত নয়। এগুলির থেকে অন্তত ৫ ফুট দূরত্ব বজায় রাখা উচিত। কারণ শ্বাসকষ্ট অবস্থায় এগুলোর কাছে গেলে শ্বাসকষ্ট আরো বাড়তে পারে।

২. এই অবস্থায় যাদের নিঃশ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যা হচ্ছে তারা পেইন্ট থিনার, এরোসল স্প্রে, ক্লিনিং ফ্লুইডের মতো দাহ্যবস্তুর কাছাকাছি যাবেন না বা সেগুলো ব্যবহার করবেন না।

৩. শ্বাস-প্রশ্বাসে সমস্যা হলে ভুল করেও ধূমপান করবেন না। এমনকি যারা ধূমপান করেন তাদের থেকেও নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখবেন।

৪. আমরা সবাই জানি গাছ বাতাস থেকে কার্বন ডাই অক্সাইড গ্রহণ করে এবং বাতাসে বিশুদ্ধ অক্সিজেন ত্যাগ করে। তাই এসময় বাড়িতে ইনডোর প্ল্যান্ট রাখার চেষ্টা করুন।

অ্যালোভেরা, মানি প্ল্যান্ট, লাকি ব্যাম্বু এগুলো ঘরের ভেতরের বাতাসকে শুদ্ধ রাখে। এছাড়াও নিজেদের বাসস্থানের আশেপাশের এলাকাতেও বৃক্ষরোপণ শুরু করুন।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার