‘খুন হতে পারেন রিয়া চক্রবর্তী’

Img

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু মামলা হার মানিয়েছে বলিউডি ক্রাইম থ্রিলারকেও ৷ প্রতিমুহূর্তে মামলায় নয়া মোড় ৷ একদিকে সুশান্তের মৃত্যু আত্মহত্যা না এর পিছনে রয়েছে অন্য কারণ, চলছে তার খোঁজ ৷ অন্যদিকে, এই মামলা ঘিরে চড়ছে রাজনৈতিক রঙ ৷ বিহার-মুম্বাই পুলিশ প্রশাসনের দড়ি টানাটানি, অসহযোগিতা ৷ তার মাঝেই রিয়া চক্রবর্তীর খুন হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করলেন জেডিইউ প্রবক্তা রাজীব রঞ্জন ৷

এই মুহূর্তে পটনায় দায়ের হওয়া এফআইআর অনুযায়ী মামলায় মূল দোষী সুশান্তের শেষ গার্লফ্রেন্ড রিয়া চক্রবর্তী ৷ গত ২৮ জুলাই সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে অভিনেতার অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা লোপাট সহ একগুচ্ছ অভিযোগ করেন সুশান্তের বাবা কে কে সিংহ । তারপর থেকে আত্মগোপন করে রয়েছেন রিয়া ৷

যদিও রিয়ার আইনজীবীর বক্তব্য, পালাননি রিয়া ৷ মুম্বাই পুলিশ তদন্তে সাহায্য করতে নিজের বয়ানও রেকর্ড করিয়েছেন সুশান্ত সিং রাজপুতের বান্ধবী, বলে জানিয়েছেন তিনি ৷

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে একাধিক জটিলতার মাঝে রিয়ার খুন হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা সামনে আসায় মামলা নিয়ে চাঞ্চল্য নতুন করে আরও বেড়ে যায় ৷ এদিন জেডিইউ প্রবক্তা রাজীব রঞ্জন বলেন, সুশান্তের মৃত্যুর ঘটনায় বর্তমানে মূল অভিযুক্ত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে রিয়া একজন গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষীও ৷

অভিনেতার অস্বাভাবিক আচমকা মৃত্যুর সঙ্গে তার ম্যানেজার দিশা সালয়ানের মৃত্যুর যোগ থাকার সন্দেহ সামনে এলেও মুম্বই পুলিশ তা খতিয়ে দেখেনি ৷ উল্টে পুরো ঘটনাটিই ঠান্ডা ঘরে পাঠিয়ে দিয়েছে ৷ কাজের ক্ষেত্রে দিশার পর সুশান্তের ব্যক্তিগত জীবনে রিয়া চক্রবর্তীই কাছের মানুষ ছিল ৷ এখন সেই এই মামলার একমাত্র সাক্ষী যে জীবিত ৷ অতএব যে কোনও মুহূর্তে রিয়ার জীবন নিয়েও টানাটানি হতে পারে বলে মনে করছেন এই জেডিইউ নেতা ৷

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার