সৌদি-কাতার সীমান্ত দিয়ে আবার আমদানি-রফতানি শুরু

image
image

প্রায় তিন বছরের বেশি সময় অবরুদ্ধ থাকার পর কাতারের ওপর সৌদি জোটের অবরোধ প্রত্যাহারের দেড় মাস পর সৌদি এবং কাতার সীমান্ত দিয়ে আবারও চালু হলো আমদানি-রফতানি কার্যক্রম। এর ফলে এই দুই দেশের সীমান্ত দিয়ে ব্যবসা-বাণিজ্যে সম্ভাবনার নতুন দ্বার খুলবে বলে আশাবাদী প্রবাসী বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা।এতে ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়বে কয়েক গুণ। ফলে নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টিসহ, নানা ক্ষেত্রে আশার আলো দেখছেন প্রবাসী ব্যবসায়ীরা।

কয়েকজন প্রবাসী বাংলাদেশি ব্যবসায়ীর সাথে কথা বলে জানা যায় এতে তারা অনেক খুশি। সমস্যা নিরসন হয়েছে। দুই দেশের মধ্যে ব্যবসা ও বাণিজ্য শুরু হয়েছে। এতে আমরা আর্থিকভাবে লাভবান হতে পারব।   

দীর্ঘ সাড়ে তিন বছর কাতারের ওপর সৌদি জোটের অবরোধের অবসান ঘটে গত ৪ জানুয়ারি। অবরোধ প্রত্যাহারের পর শুধু দুই দেশের নাগরিকদের গাড়ি চলাচলের জন্য খোলা ছিল সীমান্ত। তবে এবার বাণিজ্যিকভাবে আমদানি-রফতানির জন্য খুলে দেয়া হয়েছে সীমান্তটি।

 সৌদি জোটের অবরোধের কারণে দীর্ঘদিনের হজ কাফেলা ব্যবসা বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।সীমান্ত খুলে দেয়ায় এই ব্যবসা আবারও শুরু করা যাবে বলে আশাবাদী অনেকে।সন্ত্রাসবাদে সমর্থন ও অর্থায়নের অজুহাতে ২০১৭ সালে কাতারের বিরুদ্ধে অবরোধ আরোপ করেছিল সৌদি জোট। নিষেধাজ্ঞার কারণে কিছুটা স্থবির হয়ে পড়েছিল কাতারের অর্থনীতি। যার নেতিবাচক প্রভাব পড়েছিল প্রবাসী বাংলাদেশিদের ওপরও।

পূর্ববর্তী সংবাদ

নারীরা কৌশলে যে মিথ্যাগুলোর আশ্রয় নেন

নারীদের মনস্তত্ত্ব বুঝতে গিয়ে বহু মনীষীও হিমশিম খেয়েছেন। আসলে তারা কি চান, সে বিষয়টা কোন কোন পুরুষ হয়তো সারা জীবনেও বুঝে উঠতে পারেন না। নারীদেরও অবশ্য বহু অভিযোগ রয়েছে পুরুষদের বিরুদ্ধে। আবার কিছু নারীরা পরিস্থিতি বুঝে তা সামাল দেওয়ার জন্য কৌশলে মিথ্যার আশ্রয় নেন। তারা যেটা মুখে বলেন, মনে হয়তো থাকে তার বিপরীত কিছু। এখানে সে ধরনের কয়েকটি মিথ্যা তুলে ধরা হলো:

১) আমি তোমার ফোন কলের জন্য অপেক্ষা করছিলাম না।

২) আমি সত্যি তোমাকে পছন্দ করি। কিন্তু, এটা জানি না কখন তা ভালবাসায় রূপ নেবে।

৩) আমাদের একসঙ্গে বিল পরিশোধ করা উচিত। সবসময় তুমিই কেন সে ভার বহন করবে?

৪) আমার পছন্দের পুরুষটির মাথায় টাক থাকলে বা সে সুদর্শন না হলেও, তাতে কোন অসুবিধা নেই। অন্তত, সে যদি ধনী হয়, সেক্ষেত্রে আমরা একটি সুরক্ষিত জীবনতো পাবো।

৫) আমি কখনোই তোমার স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করবো না। কথায় কথায় খুঁত ধরবো না। তুমি যেমনটা চাইবে, তেমনটাই হবে।

৬) তুমিই একমাত্র পুরুষ যাকে আমি সারাটি জীবন ধরে চেয়েছি।

৭) তোমার কোন ভুল নেই। আমার মনে হয়, ভুলটা আমারই।

৮) আমার শ্বশুর বাড়ির লোকজনের সঙ্গে আমি সবচেয়ে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। তারা তো আমারই পরিবার।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার