সৌদি অারবে জিন পাহাড় পরিদর্শন নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে

শাহাদাত আল মাহদী | নিজস্ব প্রতিবেদক : সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৮

সম্প্রতি ওয়াদি বায়জা (জিন পাহাড়) পরিদর্শন সম্পূর্ণরূপে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে সৌদি সরকার। এই আদেশ অমান্য করে কোনো চালক বা হাজি সেখানে গেলে তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও সতর্ক করা হয়েছে। সৌদি হজ মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে বাংলাদেশ হজ অফিস, মদিনা এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে।

বাংলাদেশ হজ অফিস সূত্র জানান, জিন পাহাড় দেখতে গিয়ে হজ অফিস, মদিনার এক ড্রাইভারকে পাঁচ হাজার রিয়েল জরিমানা গুণতে হয়েছে। তাই সেখানে না যেতে সকলকে অনুরোধ করা হচ্ছে।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের হাজিদের কাছে জিন পাহাড় অন্যতম আকর্ষণীয় একটি স্থান। হাজিরা সৌদিতে আসার আগেই জিন পাহাড় সম্পর্কে শুনেছেন। মদিনাতে এসে অনেকেই সেখানে যাবেন বলে মনস্থির করেছিলেন। হঠাৎ করে সৌদি সরকারের এমন সিদ্ধান্ত হাজিদের আশাহত করেছে।

মদিনা মুনাওয়ার রহস্যময় জিন পাহাড়। আরবরা অবশ্য এই পাহাড়কে জিনের পাহাড় বলেন না। তাদের কাছে এই পাহাড়ের নাম ওয়াদি আল আবইয়াজ বা ওয়াদি আল বায়জা। ওয়াদি বলা হয় পানি জমা হওয়ার ছোট ছোট খালকে। মদিনার এই পাহাড়ের কাছ দিয়ে একটি ছোট খাল বয়ে গেছে। যদিও এখন শুকনো, পানিশূন্য। তবে বৃষ্টির সময় জমা হওয়া পানি নাকি বেশ মিষ্টি।

কথিত ওয়াদি আল জিনের অবস্থান মদিনা শহর থেকে ৪৫ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমে। মদিনা থেকে বের হয়ে কিছু খেজুর বাগান পার হয়ে যেতে হয় এলাকাটিতে। খেজুর বাগানের পর পাহাড়ি পথ। এই এলাকার পাহাড়গুলোও ব্যতিক্রম। ন্যাড়া পাহাড়, পাহাড়ের ওপর ধারালো সূচের ন্যায় ফলা ফলা মাটি দাঁড়িয়ে আছে। দেখলে মনে হবে, এই তো ভেঙে পড়বে; কিন্তু না। এমন পাহাড় মক্কা, মদিনা কিংবা তায়েফের অন্য কোনো এলাকায় দেখা যায় না। এমন পাহাড়ের মাঝখান দিয়ে বয়ে গেছে পিচঢালা সড়ক। আর সেই সড়কেই লুকিয়ে আছে এমন অপার বিস্ময়। কেউ বলে মদিনার জাদুর পাহাড় আবার কেউ বলে চুম্বকের পাহাড়। যে নামেই পরিচিত হোক না কেন এটি পৃথিবীর অবাক এক বিস্ময়। এর আরেক অবাক করা বৈশিষ্ট হলো, এটি সবকিছুকেই টেনে নিয়ে যায় মদিনার দিকে।

তথ্য:

বিভাগ:

প্রকাশ: সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৮

প্রতিবেদক: শাহাদাত আল মাহদী

পড়েছেন: 919 জন

মন্তব্য: 0 টি