সৌদিতে খ্রিস্টানদের জন্য গির্জা খোলার সিদ্ধান্ত

শাহাদাত আল মাহদী | নিজস্ব প্রতিবেদক : মে ৬, ২০১৮

সৌদিতে খ্রিস্টানধর্মাবলম্বীদের প্রার্থনার জন্য গির্জা খোলার বিষয়ে সৌদি সরকার ভ্যাটিক্যানের সাথে এক চুক্তিতে সই করেছে। ইজিপ্ট ইন্ডিপেন্ডেন্টের সূত্রে রাশিয়ার আরটির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সৌদিতে ব্যাপক সামাজিক ও সাংস্কৃতিক বিকাশের এই মাহেন্দ্রক্ষনে এ চুক্তিটি হলো।

রিয়াদ তার ইতিহাসে এবারই প্রথম খ্রিস্টানধর্মাবলম্বীদের জন্য গির্জা নির্মাণে ভ্যাটিকানের সাথে সহযোগিতামূলক চুক্তি করলো। এর মাধ্যমে রিয়াদের লক্ষ্য হলো, সন্ত্রাস ও চরমপন্থা নির্মূলে এবং বিশ্বশান্তি ও স্থিতিশীলতা রক্ষায় সকল ধর্ম ও সংস্কৃতির গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।

রাবেতা আলেমে ইসলামীর মহাসচিব শায়েখ মুহাম্মাদ বিন আবদুল কারীম আল ইসা এবং ভ্যাটিকানের সর্বধর্মীয় সংলাপের প্রধান ও ক্যাথলিক গির্জার কার্ডিনাল জন লুইস উভয় পক্ষের মাঝে যৌথ স্বার্থ বাস্তবায়নে স্বাক্ষর করে। চুক্তিতে বলা হয়, ভবিষ্যত সমাজ বিনির্মাণে একটি কমিটি করা হবে, যাতে উভয় পক্ষের দুজন করে প্রতিনিধি থাকবে এবং প্রতি দুই বছর অন্তর রোম ও রাবেতুল আলামিল ইসলামির নির্বাচিত শহরে একবার করে মিটিং হওয়ার আশা প্রকাশ করা হয়।

ভ্যাটিকানের সর্বধর্মীয় সংলাপের প্রধান ও ক্যাথলিক গির্জার কার্ডিনাল জন লুইস ১৪ এপ্রিল তার সফরসঙ্গীসহ রিয়াদে পৌঁছান। এ ঐতিহাসিক সফরে তিনি সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মুহাম্মাদ বিন সালমানের সাথে দেখা করেন। কার্ডিনাল জন লুইস রাবেতুল আলামিল ইসলামির মহাসচিব শায়েখ মুহাম্মাদ ইসার সাথে সাক্ষাতে নাস্তিকসহ যে কোনো নাগরিকের সমমর্যাদা নিশ্চিত করার ওপর জোর দেন। ভ্যাটিকান কর্তৃক প্রকাশিত এক পত্রিকা জানায়, কার্ডিনাল এক যৌথ প্রার্থনা কেন্দ্র নির্মাণের আহবান জানিয়েছে।

এই সফরের পর জন লুইস ভ্যাটিকানের পত্রিকার সাথে দেয়া সাক্ষাতকারে বর্তমান এ সম্পর্ককে ‘কাছাকাছির সূচনা’ বলে অবহিত করেন। তিনি আরো বলেন, সৌদি আরব যে দেশের নতুন চেহারা দেয়ার জন্য প্রস্তুত, এটা তার ইঙ্গিত বহন করে।

তথ্য:

বিভাগ:

প্রকাশ: মে ৬, ২০১৮

প্রতিবেদক: শাহাদাত আল মাহদী

পড়েছেন: 563 জন

মন্তব্য: 0 টি