সৌদি প্রবাসী শিল্পী ফখরুলের কন্ঠে আসছে নাশিদ “ফরিয়াদ”

Img

পবিত্র মাহে রমজানের চাওয়া নিয়ে আজকেই আসছে, সৌদি প্রবাসী শিল্পী ফখরুল ইসলামের কন্ঠে নাশিদ “ফরিয়াদ”। নাশিদটির কথা সাজিয়েছেন প্রখ্যাত গীতিকবি অধ্যাপক আবু তাহের বেলাল। সুরারোপ করেছেন শিল্পী নিজেই আর গানটির মিউজিক কম্পোজিশন করেছেন নাফিস, মিউজিক ডিরেকশন দিয়েছেন জনপ্রিয় নাশিদ শিল্পী তাওহিদুল ইসলাম। 

নাশিদটির ভিডিও নির্মান করেছেন উদিয়মান ফিল্ম ডিরেক্টর এইচ আল হাদী। 

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭ টায় শিল্পীর নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলে গানটি প্রকাশিত হবে।

পূর্ববর্তী সংবাদ

বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড়ের পূর্বাভাস

দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর এবং সংলগ্ন দক্ষিণ আন্দামান সাগরে তৈরি হওয়া প্রবল নিম্নচাপ শনিবার নাগাদ শক্তি সঞ্চয় করে ঘূর্ণিঝড়ের চেহারা নিতে পারে। আগামী রোববার অথবা সোমবার নাগাদ তা আছড়ে পড়ার জোরালো সম্ভাবনা রয়েছে। আবহাওয়া বিজ্ঞানীরা পরিস্থিতির উপরে নজর রাখছে।

নিম্নচাপটি দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর এবং সংলগ্ন দক্ষিণ আন্দামান সাগরে তৈরি হয়েছে।  এটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার পর তা ঠিক কোথায় আছড়ে পড়বে, এখনো স্পষ্ট নয়। 

আবহাওয়া বিজ্ঞানীরা বলছেন, ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার পর ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের উপকূলের দিকে ধেয়ে আসতে পারে। পশ্চিমবঙ্গ, বাংলাদেশ অথবা মিয়ানমারের দিকেও ঘুরে যাওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে। তবে এখনই এ বিষয়ে নির্দিষ্ট করে কিছু বলা যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন তারা। শনিবারের পর চিত্রটা আরো স্পষ্ট হতে পারে বলে জানিয়েছে পশ্চিমবঙ্গের আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

কলকাতার গণমাধ্যম আনন্দবাজার জানিয়েছে, বঙ্গোপসাগর-আন্দামান সাগরে নিম্নচাপ তৈরি হওয়ার পর তা ক্রমশই দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে প্রভাব বিস্তার করবে।

আগামী ১৫মে অর্থাৎ শনিবার তা আরো শক্তি বাড়িয়ে প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার অবস্থায় পৌঁছে যাবে। এরপর দক্ষিণ-পশ্চিম এবং পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগরের ওপরে অবস্থান হতে পারে ঘূর্ণিঝড়টির। শক্তি আরো বাড়িয়ে দক্ষিণ-পশ্চিমমুখী হয়ে তা উপকূলের দিকে এগোবে। 

এরপর, রোববার অথবা সোমবার ঘূর্ণিঝড়টি গতি বাড়ানোর পর, উত্তর-পূর্বমুখী হয়ে আছড়ে পড়তে পারে উপকূলবর্তী এলাকায়। ফলে বাংলাদেশ অথবা মিয়ানমারের দিকেও আসতে পারে ঘূর্ণিঝড়টি।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার