সুপ্রিম কোর্ট এলাকায় ব্যাপক নিরাপত্তা

Img

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন শুনানিকে কেন্দ্র করে আদালতপাড়া এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। জামিন শুনানির আগে প্রধান বিচারপতির এজলাসে বসানো হয়েছে আটটি ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরা। আদালত চত্বর ও আশপাশের এলাকায় বাড়ানো হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা।

বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের ওপর শুনানি হবে।

বুধবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) কর্তৃপক্ষ বিএনপি প্রধানের সর্বশেষ স্বাস্থ্যগত প্রতিবেদন উচ্চ আদালতের রেজিস্ট্রার জেনারেলের কার্যালয়ে দাখিল করে। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে ছয় সদস্যের আপিল বেঞ্চে এ প্রতিবেদন উপস্থাপন করা হবে।

জামিন শুনানির আবেদনটি আপিল বিভাগের ওয়েবসাইটে আজকের কার্যতালিকায় ১২ নম্বরে রাখা হয়েছে।

সকাল থেকে সুপ্রিম কোর্টে প্রবেশের তিনটি ফটকে অতিরিক্ত পুলিশ দেখা গেছে। আদালত ভবনের প্রবেশপথে বসানো রয়েছে আর্চওয়ে।

আজ জামিন শুনানিকে ঘিরে সরকার ও বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা নিজেদের অবস্থানকে জানান দিতেই আপিল বিভাগে জমায়েত হবেন। নিজ নিজ সংগঠনের আইনজীবীরা তাদের শক্তিমত্তা প্রদর্শন করতে এই জমায়েতের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানা গেছে।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সকাল সাড়ে আটটার মধ্যে নিজ নিজ সংগঠনের আইনজীবীদের আপিল বিভাগে থাকতে বলা হয়েছে। আইনজীবী জমায়েতের বিষয়টি বিবেচনায় রেখে আপিল বিভাগে প্রবেশের ক্ষেত্রে কড়াকড়ি আরোপ করা হবে বলে জানা গেছে।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার