সীমান্ত বন্ধ থাকলেও আখাউড়া ইমিগ্রেশন দিয়ে দেশে ফিরেছেন ৫৮৫ জন

Img

সীমান্ত বন্ধ থাকা অবস্থায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে আটকাপড়া যাত্রীদের দেশে ফেরা অব্যাহত রয়েছে।

শনিবার (১৫ মে) পর্যন্ত ৫৮৫ জন বাংলাদেশি এ চেকপোস্ট দিয়ে দেশে ফিরেছেন। এ ছাড়াও ঢাকায় ভারতীয় দূতাবাসে কর্মরত ১৫ জন ভারতীয় নাগরিকও এই সময়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছেন।

চেকপোস্ট সূত্রে জানা গেছে, গত ২৬ এপ্রিল থেকে শনিবার (১৫ মে) পর্যন্ত মোট ৬০০ জন আখাউড়া আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছেন। এর মধ্যে শনিবার প্রবেশ করেছেন ১২ জন। তাদের মধ্যে তিনজনকে ঢাকা সিএমএইচে ও বাকি ৯ জনকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিভিন্ন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে ভারতফেরত ২৭৩ জন কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে আছেন। এরা জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে বিভিন্ন হোটেল ও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রয়েছে ন।

আখাউড়া আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট পুলিশের ইনচার্জ আব্দুল হামিদ বলেন, মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে চেকপোস্ট দিয়ে সাধারণ যাত্রী পারপার কার্যক্রম দীর্ঘ দিন ধরে বন্ধ রয়েছে। তবে ভারত এবং বালাদেশে আটকা পড়া যাত্রীরা দুই দেশের হাইকমিশনের অনাপত্তিপত্র নিয়ে এই চেকপোস্ট ব্যবহার করে নিজ দেশে ফিরতে পারছেন।

পূর্ববর্তী সংবাদ

পুষ্টিতে ভরপুর জাম্বুরা

জাম্বুরা আমাদের দেশীয় একটি ফল। ভিটামিন সি সমৃদ্ধ এই ফলটি আমাদের দেশের সব জায়গাতেই পাওয়া যায়। খুবই সহজলভ্য এই ফলটি কিন্তু অনেক উপকারী।অনেকেই একে বাতাবি লেবু বলে থাকেন। টক কিংবা মিষ্টি স্বাদের এই ফলের রয়েছে বেশ মিষ্টি একটা গন্ধ। জাম্বুরার ভেতরটা রসালো এবং কোষগুলো হলুদ, গোলাপী, লাল হয়ে থাকে। জাম্বুরার খোসা ছাড়িয়ে ভেতরের কোষগুলো খাওয়া হয়ে থাকে। এছাড়াও জুস, ফ্রুট সালাদ, মিষ্টি স্যুপ হিসেবেও খাওয়া যায়।

আসুন জেনে নিই জাম্বুরার পুষ্টিগুণ এবং উপকারীতা সম্পর্কে।

পুষ্টিগুণ: জাম্বুরা ভিটামিন সমৃদ্ধ একটি ফল । খুবই সহজলভ্য এবং কম দামে পাওয়া এই ফল কিন্তু অনেক পুষ্টি সমৃদ্ধ । প্রতি ১০০ গ্রাম জাম্বুরাতে আছে খাদ্যশক্তি ৩৮ কিলোক্যালরি, প্রোটিন ০.৫ গ্রাম, স্নেহ ০.৩ গ্রাম, শর্করা ৮.৫ গ্রাম, খাদ্যআঁশ ৫ গ্রাম, খনিজ লবন ০.২০ গ্রাম, ভিটামিন বি ২০.০৪ মিলিগ্রাম, ভিটামিন সি ১০৫ মিলিগ্রাম।

এছাড়াও এতে আছে রিবোফ্লাবিন, নিয়াসিন, ক্যারোটিন, ভিটামিন বি৬, আয়রন, ম্যাগনেসিয়াম, ম্যাংগানিজ, ফসফরাস, পটাসিয়াম, সোডিয়ামের মত উপকারী সব খনিজ উপাদান। যা আমাদের শরীরের অনেক উপকার করে থাকে।

উপকারীতা: 

১। জাম্বুরাতে ভিতামিন সি ও বি থাকায় এটি আমাদের হাড়, দাঁত, ত্বক ও চুলের পুষ্টি যোগায় এবং ভালো রাখতে সাহায্য করে। স্ক্যাভি, জ্বর, মুখের ঘা ইত্যাদি সমস্যার জন্য জাম্বুরা বেশ উপকারী। এছাড়াও এতে থাকা ভিটামিন সি আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

২। এতে থাকা পটাসিয়াম এবং ম্যাগনেসিয়ামের মত উপকারী খনিজ উপাদান আমাদের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। এছাড়াও এতে থাকা ভিটামিন সি আমাদের রক্তনালীর সংকোচন প্রসারণ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে থাকে।

৩। জাম্বুরাতে ক্যালরি এবং ফ্যাট কম থাকায় ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য এটি ভীষণ রকমের উপকারী। এ ফলটি ওজন কমাতে সাহায্য করে। তাই যারা একটু মোটা বা অতিরিক্ত ওজন নিয়ে ভাবনায় আছেন তাদের জন্য জাম্বুরা অনেক উপকারী।

৪। জাম্বুরা আমাদের ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা অনেক কমায় । কারণ জাম্বুরাতে আছে প্রচুর পরিমাণে বায়োফ্লভনয়েড। যা আমাদের ব্রেস্ট ক্যান্সারের হাত থেকে রক্ষা করে থাকে।

৫। জাম্বুরা আমাদের শরীরে থাকা খারাপ কোলেস্টরল নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। এর ফলে বিভিন্ন ধরনের হৃদরোগের হাত থেকে রক্ষা করে জাম্বুরা। তাই অনেকেই একে কোলেস্টরল নিয়ন্ত্রক ফল হিসেবে বলে থাকেন।

৬। আমাদের শরীরের যেকোন ধরনের কাটা বা ক্ষত সারাতে জাম্বুরার জুড়ি নেই। যকৃত, পাকস্থলী, দাঁত এবং দাঁতের মাড়ির সুরক্ষায় জাম্বুরা অতুলনীয়। এছাড়াও এতে থাকা অ্যান্টি অক্সিডেন্ট আমাদের বয়স ধরে রাখতে সাহায্য করে এবং অল্প বয়েসে ত্বক বুড়িয়ে যাওয়া থেকে বাঁচায়।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার