সিলেট বিভাগের শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক (নারী) পূর্ণা রায় ভৌমিক

Img

সিলেট বিভাগের শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক (নারী) নির্বাচিত হয়েছেন মৌলভীবাজার আলী আমজদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পূর্ণা রায় ভৌমিক। 

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর কর্তৃক  জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক-২০১৯, বিভাগীয় পর্যায়ে তিনি সিলেট বিভাগের শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক (নারী) নির্বাচিত হয়েছেন।

ইতোমধ্যে তার প্রমিত বাংলা উচ্চারণ শেখার নতুন অডিও পদ্ধতি বেশ সমাদৃত হয়েছে। উল্লেখ্য তিনি ২০০৯ সালেও শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক নির্বাচিত হন।

পূর্ণা রায় ভৌমিক চাকরিতে যোগ দেন ১৯৯৩ সালে। তার প্রথম কর্মস্থল ত্রৈলোক্যবিজয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। এরপর পৌরসভার নওয়াগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বদলি হন। ২০০২ সাল থেকে একাধারে ১৬ বছর প্রধান শিক্ষক হিসেবে কাজ করেন টিলাবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। ওখানেই প্রায় ২৩ থেকে ২৪ টি ইনোভেশন আইডিয়া বাস্তবায়ন করেন তিনি। এর মধ্যে স্মাইলি, স্টার, মুক্তিযুদ্ধ কর্নার, ঝুলন্ত বিন, বোতল দিয়ে জুতা রাখার র‌্যাক, পোর্টফলিও, সমাবেশে নীতিবাক্য, ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ ক্লাব, মজার দোকান, প্রয়োজন ব্যাংক, সেরা শিক্ষার্থী বোর্ড, উচ্চারণ (বাংলা অডিও) উল্লেখযোগ্য।

নতুন আরও একটি আইডিয়া “গেটপাস” ডিপিই’র অর্থায়নে কাজ শেষ করে এখন শ্রেণিকক্ষে। যা শিক্ষার্থী ও শিক্ষকেদের উপকারে আসছে। শিক্ষার্থী ক্লাসে মনোযোগ দিতে বাধ্য হবে, শিক্ষকের স্ব অনুচিন্তনে সাহায্য হবে।

ব্যক্তিজীবনে তিনি শিক্ষক দম্পতি। তার স্বামী রানু কুমার তালুকদারের সহযোগিতা ও উৎসাহে এতদূর আসতে পেরেছেন বলে জানান তিনি। স্বামী ও টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ, মৌলভীবাজারের বাংলা  ভাষা শিক্ষক। উনাদের এক ছেলে ও এক মেয়ে সন্তান রয়েছেন। 

পূর্না রায় ভৌমিক জানান, তিনি যতদিন বেঁচে থাকবেন ততোদিন শিশুদের কাজে নিজের সময়কে ব্যয় করতে চান বলে দৃঢ় প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার