প্রথম ম্যাচে রেকর্ড ব্যবধানে জয় পাওয়া বাংলাদেশকে দ্বিতীয় ম্যাচে ঘাম ঝরিয়ে ছেড়েছে জিম্বাবুয়ে। তবে খুশির কথা যে এক ম্যাচ হাতে থাকতেই সিরিজ জয় নিশ্চিত করেছে টাইগাররা।

মঙ্গলবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সফরকারীদের মাত্র ৪ রানে হারাতে পেরেছে স্বাগতিকরা।

টসে জিতে আগে ব্যাট করা মাশরাফি বিন মুর্তজার দল করে ৩২২ রান। এ লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে গিয়ে ৫০ ওভার শেষে জিম্বাবুয়ে থামে ৩১৮ রানে।

জয়ের জন্য শেষ ওভারে সফরকারীদের দরকার ছিল ২০ রান। ক্রিজে ছিলেন দুই সেট ব্যাটসম্যান টিনোটেন্ডা মুতোম্বোজি ও ডোনাল্ড তিরিপানো। তাদের মোকাবিলা করার জন্য অধিনায়ক বল তুলে দেন অভিজ্ঞ পেসার আল-আমিন হোসেনের হাতে।

আল-আমিন প্রথম বলে ১ রান ও পরের বল ওয়াইড দেয়ার পর তৃতীয় বলে মুতোম্বোজিকে ক্যাচ বানালে মনে হচ্ছিল স্বস্তির এক জয় পেতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। কিন্তু পর পর দুই বলে ছক্কা মেরে তিরিপানো জানিয়ে দেন যে তারাও ছেড়ে কথা বলবেন না। তবে শেষ রক্ষা আর হয়নি। পঞ্চম বল মিস করার পর শেষ বলে মাত্র ১ রান আসে তিরিপানোর ব্যাট থেকে। আর সেই সাথে সফরকারীরা সুযোগ হারায় সিরিজে ফেরার।

স্বাগতিকদের হয়ে তাইজুল ইসলাম তিনটি এবং মাশরাফি, শফিউল ইসলাম, মেহেদী হাসান মিরাজ ও আল-আমিন একটি করে উইকেট পেয়েছেন।

এর আগে ওপেনার তামিম ইকবালের ১৫৮ রানের সুবাদে বাংলাদেশ সংগ্রহ করে ৩২২। দলের পক্ষে অন্যদের মধ্যে মুশফিকুর রহিম ৫৫, মাহমুদউল্লাহ ৪১ ও মোহাম্মদ মিঠুন ৩২ রান করেন।

রবিবার প্রথম ম্যাচে ১৬৯ রানের বিশাল জয় পায় বাংলাদেশ। যেকোনো দলের বিরুদ্ধে এটিই সবচেয়ে বড় ব্যবধানে জয়ের রেকর্ড টাইগারদের।

সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচ একই মাঠে ৬ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। পরে দুই দল ঢাকায় ফিরে ৯ ও ১১ মার্চ দুটি টি২০ ম্যাচে মুখোমুখি হবে।