সাভারে চাঁদাবাজির অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার

Img
কমলা রঙের পাঞ্জাবি পরা চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান

সাভারের বিরুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা সাইদুর রহমান ওরফে সুজনকে চাঁদাবাজির অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে। 

মঙ্গলবার রাতে উপজেলার বিরুলিয়া এলাকা থেকে সাভার মডেল থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

পুলিশ জানায়, রাজধানীর শান্তিনগরের আশরাফুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি বিরুলিয়া ইউনিয়নের কাকাবো এলাকায় একটি বাড়ি নির্মাণ করছেন। বাড়িটির চার তলার কাজ চলমান। ওই বাড়ির নির্মাণকাজ শুরু করার পর থেকেই চেয়ারম্যান ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ কর্মী সাইদুর রহমান তার কাছে চাঁদা দাবি করে আসছিলেন। মঙ্গলবারও দলবল নিয়ে চেয়ারম্যান ওই বাড়িতে গিয়ে পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। এ সময় নানা ভয়ভীতির মুখে আশরাফুল এক লাখ টাকা দিতে বাধ্য হন। পরে তিনি থানায় গিয়ে অভিযোগ করেন।

সাভার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আশরাফুল ইসলাম সাভার থানায় চেয়ারম্যান সাইদুর রহমানসহ সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। পরে রাত সাড়ে ১০টার দিকে চেয়ারম্যানকে গ্রেফতার করা হয়। বুধবার তাকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।

পূর্ববর্তী সংবাদ

আজও টিকিটের জন্য হাহাকার সৌদি প্রবাসীদের

বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারির কারণে দেশে এসে আটকে পড়া সৌদি প্রবাসীদের টিকিটের জন্য আজও হাহাকার করতে দেখা গেছে।

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকেই রাজধানীর কারওয়ান বাজার মোড়ে অবস্থিত সোনারগাঁ হোটেলের সামনে সৌদি প্রবাসীদের টিকিটের জন্য দীর্ঘ সময় ধরে অপেক্ষা দেখা যায়।

জানা যায়, অনেকের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে। কিন্তু এখনও তারা  টিকিট পাচ্ছেন না। আবার অনেকের ভিসার মেয়াদ থাকলেও এখনও টিকিট না পাওয়ায় সৌদি ফেরার বিষয়ে অনিশ্চয়তা থেকে যাচ্ছে।

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে মোস্তফা সৌদির তায়েফে ১৩ বছর ধরে বাচ্চাদের বিভিন্ন ধরনের ড্রেস ও খেলনার ব্যবসা করেন।  টিকিটের জন্য সপ্তাহখানেক ঘুরলেও এখনও টিকিট পাননি। তিনি বলেন, এখনও আমি টোকেন পাইনি, আমি গত মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) থেকে টোকেন জন্য চেষ্টা করছি। মাঝে আরেক মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) চলে গেলেও আগামী ৪ অক্টোবর টোকেন দেবে বলেছে কর্তৃপক্ষ। ওই দিন টোকেন দিলে টিকিটের জন্য ১০ থেকে ১২ অক্টোবর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। ততদিনে আমারও ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাবে।

তিনি আরও বলেন, আমার দাবি যাদের ভিসার মেয়াদ আছে তাদের অগ্রাধিকার দেওয়া হোক এবং যাদের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছে, মেয়াদ নতুন করে বাড়ানো দরকার, তাদের যেন সরকার মেয়াদ বাড়িয়ে দেয় এটাই আমার সরকারের কাছে দাবি।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার