সাধারণ লেবুর দারুণ ৭ টি কার্যকরী ব্যবহার

Img

লেবু তার স্বাদ গন্ধ এবং পুষ্টিগুণের জন্যই সকলের কাছে অনেক বেশি জনপ্রিয়। খাবারের স্বাদ খুব সহজেই বাড়িয়ে দিতে পারে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস, অসাধারণ সুঘ্রাণের কারণে খাবারের ঘ্রাণও বাড়িয়ে তোলে অনেক। আর ভিটামিন সিয়ের গুনাগুন তো রয়েছেই। কিন্তু লেবু কি শুধুই খাদ্য হিসেবে ব্যবহৃত হয়? না। লেবুর রয়েছে আরও নানা ধরণের অসাধারণ সব ব্যবহার। জানতে চান সেই ব্যবহারগুলো?

চলুন তবে জেনে নেয়া যাক:

১) শুধুমাত্র লেবুর রস ত্বকের ব্রণের উপর আলতো ঘষে লাগিয়ে ৫-১০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেললে ব্রণের লালচে ভাব দূর হয় এবং ফোলা ভাব কমে আসে। লেবুর অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল উপাদান ব্রণ সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করতে সহায়তা করে।

২) ব্রণের দাগের উপরে লেবুর রস লাগালে তা দূর হয়ে যায় বেশ দ্রুতই। লেবুর ব্লিচিং ইফেক্ট দাগ হালকা করতে বিশেষভাবে সহায়ক।

৩) খুব বেশি তৈলাক্ত ত্বক? তাহলে রাতে ঘুমানোর পূর্বে একটি তুলোর বল লেবুর রসে ডুবিয়ে পুরো মুখে লাগিয়ে রাখুন সারারাত। সকালে উঠে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। ব্যস, সমস্যার সমাধান।

৪) ঠোঁটের উপরের মরা চামড়া খুব সহজে তুলে ফেলতে লেবুর রসের জুড়ি নেই। লেবুর রস ঠোঁটে আলতো করে ঘষতে থাকুন, বেশ সহজেই মরা চামড়া দূর হবে এবং একই সাথে ঠোঁটের কালচে ভাব দূর হবে।

৫) দাঁতের হলদেটে ভাব দূর করতে চান? তাহলে লেবুর বিকল্প নেই। ১ চা চামচ বেকিং সোডাতে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে তা দাঁতে লাগিয়ে রাখুন ১ মিনিট। এরপর মুখ ধুয়ে নিন।

৬) হাতের নখ খুব দ্রুত ভেঙে যায় বলে অনেকেই একটু বড় নখ রাখতে পারেন না। এই সমস্যা সমাধান করবে লেবুর রস। অলিভ অয়েলের সাথে লেবুর রস মিশিয়ে নখে লাগান। ১০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। নখের ভঙ্গুরতা কমে যাবে।

৭) রুক্ষ চুল বা খুশকির সমস্যা? লেবুর রস, অলিভ অয়েল, মধু ও নারকেল তেল একসাথে মিশিয়ে চুলে লাগান। ৩০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। চুলের শুষ্কতা এবং খুশকি দূর হবে খুব সহজেই।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার