সাতক্ষীরা কলারোয়ায় পানিতে ডুবে প্রাণ গেল এক শিশুর

Img

সাতক্ষীরা কলারোয়ায় পুকুরের পানিতে ডুবে এক কন্যা শিশুর করুন মৃত্যু হয়েছে। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলায় সীমান্তবর্তী কাদপুর গ্রামে।

আজ শুক্রবার বেলা ১২ টার দিকে উপজেলার চন্দনপুর ইউনিয়নের কাদপুর গ্রামের মাসুম বিল্লাহ’র কন্যা সামিয়ার (১) এমন মৃত্যু হয়।
 
পারিবারিক ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায় বাড়ির পাশে খেলা করছিল শিশু সামিয়া। খেলার এক পর্যায়ে সে সবার অজান্তে পুকুরের পানিতে পড়ে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজির পর এক সময় তার মা পানিতে ভাসতে দেখে মৃত অবস্থায় মেয়েকে উদ্ধার করেন।

এ ব্যাপারে কাদপুর গ্রামের ইউপি সদস্য শাহাদাত হোসেন ও মারা যাওয়া শিশুটির বাবা মাসুম বিল্লাহ মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ।

পূর্ববর্তী সংবাদ

নেত্রকোনায় নিখোঁজ কিশোরীর লাশ উদ্ধার

নেত্রকোনার দুর্গাপুরে সদর ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামে কচু লতি টুকাতে গিয়ে নিখোঁজের একদিন পর সীমান্ত এলাকার ঝর্ণার পানির গর্ত থেকে কিশোরী আফসানা (১১) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে ওই ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামের খামারখালী পাড়াস্থ সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত আফসানা ওই গ্রামের দিনমজুর আবু ছালেক এর কনিষ্ট কন্যা। সে স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় পড়তো বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দুর্গাপুর সদর ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামের পাহাড়ী টিলার আশপাশে বুধবার সকালে কচু লতি (সবজি) তুলতে গিয়ে নিখোঁজ হয়। দিনভর খোঁজে শিশুটিকে কোথায় পায়নি পরিবারের লোকজন। পরে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় স্থানীয় লোকজন সীমান্তে বিএসএফ ক্যাম্প এর কাছাকাছি ঝর্ণার গর্তের মাঝে শিশুর লাশটি দেখতে পায়। খবর পেয়ে পুলিশ রাত নয়টার দিকে লাশটি উদ্ধার করে শুক্রবার সকালে নেত্রকোনা আধুনিক হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

দুর্গাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মিজানুর রহমান জানান, পুলিশ নিখোঁজ শিশুটির লাশ উদ্ধার করে। তখন শিশুটির মুখে কাপড় গুজানো ও গলায় ওড়না পেচানো অবস্থায় পাওয়া গেছে। তবে ধারণা করা হচ্ছে ওই শিশুটিকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। শিশুটির বাবা একটি অভিযোগ দাখিল করেছে। অতি দ্রুত তদন্ত চলছে। ঘটনার রহস্য উদঘাটন করে এ ন্যাক্কারজনক ঘটনার সাথে সম্পৃক্তদের আইনের আওতায় আনা হবে।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার