চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে। সোমবার সকাল ৯টা থেকে একটানা বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলবে। উপজেলার ১২৫টি কেন্দ্রের সবগুলোতে ইভিএম মেশিনে ভোটগ্রহণ চলছে।

সকাল থেকে বিভিন্ন কেন্দ্রে ভোটাররা আসতে শুরু করেছেন। পুরুষের চেয়ে নারী ভোটারের সংখ্যা কম লক্ষ্য করা গেছে।

এদিকে সাড়ে ১০টা পর্যন্ত কোনো কেন্দ্রে অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর বিপুল সংখ্যক সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। 

নির্বাচনের মাঠে চেয়ারম্যান পদে তিনজন প্রার্থী থাকলেও মূল লড়াই হবে বড় দুই দল আওয়ামী লীগ এবং বিএনপির দলীয় প্রতীক নৌকা ও ধানের শীষের প্রার্থীদের মধ্যে।

আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচারণায় সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে নৌকায় ভোট চাওয়া হয়েছে। অন্যদিকে দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি, তারেক রহমানকে দেশে ফেরানো ছাড়াও জিয়া পরিবারের অত্যন্ত মর্যাদার এই আসন ধরে রাখতে ধানের শীষে ভোট চাইছে বিএনপি। তবে দুই দলই এবারের এই নির্বাচনকে মর্যাদার লড়াই হিসেবে দেখছে। ভোটারদের কাছেও ভোট প্রার্থনা করা হয়েছে সেভাবেই।

এই নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী এমএ মোতালেব সিআইপি ( নৌকা), বিএনপির প্রার্থী আবদুল গফফার চৌধুরী (ধানের শীষ) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আবদুল মোনায়েম মুন্না চৌধুরী (মোটরসাইকেল)।

ভাইস চেয়ারম্যান পদের প্রার্থীরা হলেন- সালাহ উদ্দিন হাসান চৌধুরী (বই), মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন (চশমা), মোহাম্মদ শাহজাহান (তালা), বশির উদ্দিন আহমদ (ধানের শীষ), আছিফুর রহমান সিকদার (মাইক) ও ওমর ফারুক লিটন (নলকূপ)।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন- আনজুমান আরা বেগম (কলসি), তারান্নুম আয়েশা (প্রজাপতি) ও জান্নাতুন নাঈম রিকু (ধানের শীষ)।

জেলা নির্বাচন অফিস থেকে জানা গেছে, সাতকানিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মোট ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ৮৩ হাজার ৩৮০ জন ভোটারের মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৫০ হাজার ২৮৬ জন ও মহিলা ভোটার ১ লাখ ৩৩ হাজার ৯৪ জন।

চট্টগ্রাম জেলার সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার মো. মুনীর হোসাইন খান জানান, সাতকানিয়া উপজেলা জুড়ে মোট ১২৫টি ভোট কেন্দ্রে ভোটগ্রহণের জন্য ১২৫জন প্রিসাইডিং অফিসার, ৭০১জন সহকারী প্রিসাইডিং ও ১৪০২জন পোলিং অফিসার দায়িত্ব পালন করছেন।