শিক্ষা উপমন্ত্রীর মা করোনায় আক্রান্ত

Img

শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের মা চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর স্ত্রী হাসিনা মহিউদ্দিন ও বাড়ির দুই গৃহকর্মী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. ফজলে রাব্বি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গত রবিবার (১০ মে) মহিউদ্দিনের ছোট ছেলে বোরহানুল হাসান চৌধুরী সালেহীনের করোনা শনাক্ত হওয়ার পর তার পরদিন সোমবার (১১ মে) মহিউদ্দিনের পরিবারের চশমা হিলের বাসা থেকে ৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। মঙ্গলবার (১২ মে) সেই ৮ জনের মধ্যে হাসিনা মহিউদ্দিন ও দুই গৃহকর্মীর করোনাভাইরাস শনাক্ত হলো। ওই দুই গৃহকর্মীর নাম শাকি এবং হারাধন।

বোরহানুল হাসান চৌধুরী সালেহীন চট্টগ্রামের চশমা হিলের বাসভবনে আইসোলেশনে আছেন।

আক্রান্তরা সকলে চিকিৎসকের পরামর্শে চশমা হিলের মেয়র গলিতে বাসায় আইসোলেশনে আছেন।

অপরদিকে শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল এবং পরিবারের সদস্যরা ঢাকায় নমুনা পরীক্ষা করিয়েছেন। তাদের সবার করোনা নেগেটিভ পাওয়া গেছে।

পূর্ববর্তী সংবাদ

চট্টগ্রামের তিন ল্যাবে আরও ৩৪ জনের করোনা পজেটিভ

গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের দুটি ল্যাব ও কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজের ল্যাবে মোট ৪৭৯টি নমুনা পরীক্ষা করে চট্টগ্রাম জেলার ৩৪ জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ পাওয়া গেছে।

চট্টগ্রামের বিআইটিআইডিতে ২৪৮টি নমুনা পরীক্ষা করে চট্টগ্রাম জেলায় ২৭ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া যায় যাদের মধ্যে ২৫ জন নগরীর বিভিন্ন এলাকার এবং ২ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস ইউনিভার্সিটিতে (সিভাসু) ৭০টি নমুনা পরীক্ষা করে ২০টি নমুনা পজিটিভ পাওয়া যায়। তাদের মধ্যে চট্টগ্রাম জেলার ২ জন।

কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজের ল্যাবে চট্টগ্রাম জেলার ৩৯টি নমুনা পরীক্ষা করে ৫ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত করা হয়।

এ নিয়ে চট্টগ্রামে মোট করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৪১৭ জনে। মৃত্যুবরণ করেছেন ২৩ জন এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৭৯ জন।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার