শাহজাদপুরে করোনা প্রতিরোধে যুবলীগের উদ্যোগে লিফলেট, মাস্ক ও সাবান বিতরণ

Img

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব হাসিবুর রহমান স্বপনের নির্দেশনায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে উপজেলা যুবলীগের উদ্দোগে রিকশা চালক, ভ‍্যান চালক, সিএনজি চালক, দোকানদার ও পথচারীদের মাঝে জনসচেতনতা মূলক লিফলেট, মাস্ক ও সাবান বিতরণ করা হয়েছে। 

শাহজাদপর পৌর শহরের বিসিক বাসস্ট্যান্ড, থানার ঘাট, শাহজাদপুর বাজারে বিভিন্ন স্পটে এই কার্যক্রম পরিচালিত হয়। করোনা ভাইরাস রোধে এই কার্যক্রমে ২২শো  পিচ মাস্ক, ২২শো পিচ সাবান ও লিফলেট বিতরণ করা হয় বলে সংশ্লিষ্ট জানান।

এ সময় এই কার্যক্রমে অন‍্যান‍্যের মধ্যে উপস্থিত ছিল শাহজাদপুর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আশিকুল হক দিনার, পৌর যুগ্ম যুবলীগের আহবায়ক সোহেল রানা, যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল্লাহ আল  মামুন সহ উপজেলা ও পৌর যুবলীগ নেতাকর্মীরা।

উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আশিকুল হক দিনার জানান, বিশ্বব‍্যাপী করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত প্রায় ১১ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে। ইতিমধ্যে আমাদের দেশেও এই প্রানঘাতী ভাইরাস বিস্তার হতে শুরু করেছে। তাই সংসদ সদস্যহাসিবুর রহমান স্বপন শাহজাদপুরের জনগণের জন্য উদ্বিগ।শাহজাদপুর উপজেলা করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে আমরা উপজেলা যুবলীগের পক্ষ থেকে তাঁর নির্দেশনায় এই কার্যক্রম হাতে নিয়েছি।

পূর্ববর্তী সংবাদ

করোনাআতঙ্কে দূরত্ব বজায় দেখে মদ কিনছেন

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে জমায়েত করতে নিষেধ করেছে সরকার। তাই রাজনৈতিক দলের কর্মসূচি থেকে ধর্মীয় অনুষ্ঠান সবকিছু বাতিল হয়েছে। রাস্তাঘাটেও কমে গিয়েছে লোক চলাচল। প্রতিদিনই ভারতের বিভিন্ন রাজ্য থেকে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকটি রাজ্যের সরকারি দপ্তরগুলি বন্ধ রাখা হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের অনেকেই ঘর থেকে কাজ করছেন। সাধারণ মানুষ বাড়ি থেকে কাজে বেরতে বাধ্য হলেও যথেষ্ট সাবধানতা বজায় রাখছেন। এমনকী মদের দোকানে গিয়ে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখছেন ক্রেতারাও। সম্প্রতি কেরলের ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে সেই ছবিই চোখে পড়েছে। যা দেখে বিস্মিত নেটিজেনরা। বলছেন, এরা জাতে মাতাল হলেও তালে ঠিক।

ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, একটি মদের দোকানের সামনে কয়েকটি মানুষ লাইন দিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন। আর প্রত্যেকেই একটি দূরত্ব বজায় রেখে চলেছেন। এক থেকে দেড়ফুট দূরত্বে চুন দিয়ে দাগ কাটা রয়েছে। প্রত্যেকটি ক্রেতাই সেই দাগ অনুযায়ী লাইন দিয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছেন। একটু এদিক-ওদিক হলেই মদের দোকানের নিরাপত্তারক্ষী মুখে মাস্ক পড়ে লাইন সোজা করছেন।

ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট হওয়ার পরেই প্রচুর মানুষ সেটি দেখেছেন। আর তার মধ্যে কেউ কেউ ভূয়সী প্রশংসা করেছেন মদের দোকানদার ও লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা ক্রেতাদের। আবার অনেকে ব্যঙ্গ করে বলছেন, ওই লোকগুলি মদ খেয়ে মরতে রাজি। কিন্তু, করোনা ভাইরাসের বলি হতে চান না। তাই মদের দোকানে গিয়ে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখছেন।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার