রাজকীয় উপাধি হারালেন হ্যারি-মেগান

Img

যুক্তরাজ্যের ডিউক অব সাসেক্স প্রিন্স হ্যারি ও তার স্ত্রী ডাচেস অব সাসেক্স মেগান মার্কেল আর তাদের রাজকীয় উপাধি ব্যবহার করতে পারবেন না। একই সঙ্গে তাদের সরকারি বাসস্থান উইন্ডসর ক্যাসেল সংস্কার করতে যে প্রায় ৩০ লাখ ডলার খরচ হয়েছে, তা শোধ করতে হবে।

শনিবার বাকিংহাম প্রাসাদের পক্ষ থেকে এক বিবৃতির এ তথ্য জানানো হয়। খবর নিউইয়র্ক টাইমস ও বিবিসির।

রাজপরিবারের হ্যারি ও মেগানের উপাধি ডিউক অ্যান্ড ডাচেস অব সাচেক্স। গত সপ্তাহে তারা ঘোষণা দিয়েছেন রাজপরিবারের সিনিয়র সদস্য হিসেবে অর্পিত দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন তারা।

ওই ঘোষণায় আরও বলা হয়, তারা স্বাধীনভাবে অর্থ উপার্জন করতে চান এবং ব্রিটেনের পাশাপাশি উত্তর আমেরিকাতেও বসবাস করতে চান।

আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী হতে এবং নিজেদের সময় উত্তর আমেরিকা ও যুক্তরাজ্যের মধ্যে ভাগ করার লক্ষ্যে রাজপরিবারের ভূমিকা সীমিত করতে চান হ্যারি-মেগান।

ব্রিটিশ সিংহাসনে উত্তরাধিকারের ধারায় হ্যারি আছেন ষষ্ঠ অবস্থানে।

জানা গেছে, বেশ কিছু দিন ধরেই তারা বিষয়টি নিয়ে যুবরাজ চার্লসের সঙ্গে কথা বলেছেন এবং আলোচনার জন্য রানির সাক্ষাৎ চেয়েছিলেন। কিন্তু বড়দিনের আগে সেই সাক্ষাৎ না পেয়ে তারা অবকাশ কাটাতে কানাডা চলে যান এবং সেখানে বসেই তাদের সিদ্ধান্ত জনসমক্ষে প্রকাশের সিদ্ধান্ত নেন।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার