যেসব ভুল খাবারে হতে পারে অকাল মৃত্যু!

Img

সুস্থ থাকার জন্য সঠিক খাবার খাওয়া খুব জরুরি। তবে খাবার খাওয়ার ব্যাপারে আমাদের অবশ্যই সচেতন হতে হবে। নইলে এই খাবারই অকাল মৃত্যুর কারণ হয়ে দাঁড়াবে। 

ল্যানসেটে প্রকাশিত এক বিশ্লেষণে দেখা যাচ্ছে, দৈনন্দিন যে খাদ্য তালিকা সেটিই ধূমপানের চেয়ে বেশি প্রাণহানি ঘটায়। বিশ্বব্যাপী প্রতি পাঁচটি মৃত্যুর মধ্যে একটির জন্য এই ডায়েট বা খাবারই দায়ী। এক সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে, প্রতিবছর এক কোটিরও বেশি মানুষ মারা যাচ্ছে শুধু খাবারের কারণেই।

গবেষকরা বলছেন, শুধু মাত্র স্থূলতা নয়, বরং নিম্নমানের খাদ্যাভ্যাসের কারণে হার্ট অ্যাটাক বা ক্যান্সারের মতো জটিল রোগে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ। ‘দ্যা গ্লোবাল বার্ডেন অফ ডিজেস স্টাডি’নামের এক গবেষণায় উঠে এসেছে কেবল খ্যাদ্যাভ্যাসের কারণে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে মারা যাওয়ার মানুষের আনুপাতিক সংখ্যা।

অতিরিক্ত লবণ, এই উপাদানটি ৩০ লাখ মানুষের মৃত্যুর কারণ। 

কম দানাদার শস্য খাওয়া, এটিও ৩০ লাখ মানুষের মৃত্যুর কারণ। 

ফলমূল কম খাওয়া, এটি ২০ লাখ মানুষের মৃত্যুর কারণ। 

এছাড়া বাদাম, বীজ, শাকসবজি, সামুদ্রিক খাদ্য থেকে পাওয়া ওমেগা-৩ এবং আঁশ জাতীয় খাবারের পরিমাণ কম হওয়াটাও মৃত্যুর বড় কারণগুলোর অন্যতম।

ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ক্রিস্টোফার মুরে জানান, ডায়েটকেই আমরা স্বাস্থ্যের অন্যতম প্রধান পরিচালক হিসেবে পেয়েছি। এটা সত্যিই অনেক গভীর।

লবণ যেভাবে মৃত্যুর কারণ
এক কোটি দশ লাখ ডায়েট সম্পর্কিত মৃত্যুর মধ্যে এক কোটির মৃত্যু হচ্ছে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে। অতিরিক্ত লবণ উচ্চ রক্তচাপ বাড়িয়ে দেয় যা স্ট্রোক বা হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়ায়। হার্টে ও রক্ত বহনকারী ধমনীর ওপর লবণের প্রভাব পড়ে সরাসরি যা হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধের ঝুঁকি তৈরি করে।

- সূত্র: বিবিসি
প্রতিক্রিয়া (৮) মন্তব্য (০) শেয়ার (৩)