যুক্তরাষ্ট্রেরের ফিলাডেলফিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি ছাত্রী নিহত

Img

যুক্তরাষ্ট্রের পেনসেলভেনিয়া অঙ্গরাজ্যের ফিলাডেলফিয়া শহরে প্রবাসী বাংলাদেশি ড্রেক্সেল ইউনিভার্সিটির দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী মেহেরুন চৌধুরী (১৯)বুধবার রাতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন।

মেহেরুন ফিলাডেলফিয়ার প্রবাসী লুৎফর হায়দার চৌধুরী মিঠুর বড় কন্যা।

মেহেরুনের চাচা লুৎফুর রহমান চৌধুরী জানান, ৫ নভেম্বর সকাল ১০টায় চেসনুট ও ৬০ স্ট্রিট দিয়ে সে নিজে ড্রাইভ করে যাচ্ছিল, ৩ লাইনের এ রাস্তাটিতে কাজ চলছিল, তাই ৫৯ স্ট্রিট এ এসে শুধু এক লাইন খোলা ছিল। এমন সময় রাস্তাটিতে খুব জ্যাম লেগে যায় এবং পেছন থেকে অন্য একটি গাড়ি সজোরে ধাক্কা দেয়, এতে গাড়িটি সামনের স্কুল বাসে ঢুকে পড়ে, এতে তার গাড়ির সামনের অংশ চূর্ণ-বিচূর্ণ হয়ে যায়।

গুরুতর আহত অবস্থায় ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে ফিলাডেলফিয়ার পুলিশ অ্যাম্বুলেন্স দিয়ে তাদেরকে পেন প্রেস-বেটেরিয়ান মেডিকেল সেন্টারে ভর্তি করা হয়। প্রাথমিক চিকিৎসার পর আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। ৩৭ ঘণ্টা লাইফ সাপোর্টে থাকার পরে তার মৃত্যু হয়।

পূর্ববর্তী সংবাদ

শ্রোতা-দর্শকই হিট-ফ্লপ বিচার এর যোগ্য বিচারক: সঙ্গীতশিল্পী উপমা

উপমা তরুণ প্রজন্মের সঙ্গীতশিল্পী। গান করছেন বেশ ক’বছর ধরে। একাধারে লাইভ কনসার্ট, টিভি সঙ্গীতানুষ্ঠান, প্লেব্যাক, মিউজিক ভিডিও ইত্যাদি মাধ্যমগুলোতে পারফর্ম করে চলছেন। রয়েছে তার নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল, ফেইসবুক অফিসিয়াল ভ্যারিফাইড পেইজ, ইন্সটাগ্রাম একাউন্টও। সম্প্রতি উপমার সঙ্গে কথা হয় প্রবাসীর দিগন্ত টিমের সঙ্গে। বর্তমান সময়ের ব্যাস্ততা ও আগামী দিনের কর্মপরিকল্পনা ও বিভিন্ন বিষয় নিয়ে উপমা বলেন, স্টেজ শো, টিভি প্রোগ্রাম, গান নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটছে। আর পড়াশুনা ও পরীক্ষা তো আছেই। সবমিলিয়ে ব্যস্ততার মধ্যে আছি।

উপমা বলেন, আমি নিজেকে আধুনিক গানের শিল্পি মনে করি। তবে ক্লাসিক্যাল, নজরুল সঙ্গীত করতে পছন্দ করি। বর্তমানে একজন শিল্পীর জনপ্রিয়তা তুলনা করা হয় ইউটিউব ভিউ এর মাধ্যমে। আসলে ‘ভিউ’ দিয়ে গান হিট-ফ্লপ বা শিল্পীর যোগ্যতা নির্ধারণ করা ঠিক নয়। তবে গান যেরকমই হোক না কেনো, শ্রোতা-দর্শকের কাছে পৌঁছানোটা হলো সবচেয়ে বড় কথা। শ্রোতা - দর্শক ই হিট-ফ্লপ এর বিচার করবে।

এ শিল্পী আরো বলেন, লাইক ‘কমেন্ট’ও একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এটাকে আমি খুবই গুরুত্ব দিই, কারণ কমেন্ট থেকেই গানটির প্রতি শ্রোতার ‘গ্রহণযোগ্যতা’ বোঝা যায়।

গানের অডিও ভিডিও’র মধ্যে কোনটা বেশি গুরুত্বপূর্ণ এমন প্রশ্নের জবাবে উপমা বলেন, আগে গান প্রাধান্য পাবে এরপর ভিডিও। অনেকে গানের চেয়ে ভিডিওকে প্রাধান্য দেয় বেশি। এ কারণে গানের মূল লক্ষ্যটি হারিয়ে যাচ্ছে। ফলে একজন শিল্পীর স্থায়িত্বও কমে যাচ্ছে।

এ সময়ে তার গান সম্পর্কে উপমা বলেন, ২ টি গানের অডিও কম্পোজিশনের কাজ প্রায় শেষ। তার মধ্যে একটি বেলাল খান-এর সুরে। একটি দেশের গানের কাজ চলছে রবিউল ইসলাম জীবন-এর কথায়। এগুলো শিঘ্রই প্রকাশিত হবে।

উপমা বলেন, আমার লক্ষ্য, আগে ভালো করে গান শেখা, তারপর গানের জগতে প্রতিষ্ঠা পাওয়া। রঙিন ভিডিওর দিকে লক্ষ্য না করে অডিও গানটির প্রতি যত্ন নিয়ে ঠিকভাবে গাওয়া।

ভক্ত - শ্রোতাদের ভালোবাসা ও দোয়া নিয়ে আরো অনেকদূর এগিয়ে যেতে চায় তরুন প্রজন্মের এ শিল্পী ।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার