যশোর শহর থেকে রফিকুল ইসলাম (৪৯) এক ব্যক্তি নিখোঁজ হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে ডাক্তার দেখানোর উদ্দেশ্যে তিনি নিজ বাড়ি বাঘারপাড়া উপজেলার আজমপুর থেকে যশোর শহরে আসেন। বিভিন্নস্থানে তার কোন সন্ধান না পেয়ে রফিকুল ইসলামের মেয়ে শারমিন নাহার শুক্রবার কোতোয়ালি মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

শারমিন নাহার জিডিতে উল্লেখ করেছেন, তার পিতা ডাক্তার দেখানোর জন্য বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ি থেকে রওনা হয়ে আসেন। এদিন বেলা ১১টার দিকে যশোর শহরের দড়াটানা ব্রিজের কাছে পৌঁছানোর পর অজ্ঞাতনামা দুই যুবক নিজেদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর লোক পরিচয় দিয়ে রফিকুল ইসলামের পরিচয় এবং কোথায় যাচ্ছে জানতে চায়। এক পর্যায় তার কাছে থাকা ডাক্তারে আগের ব্যবস্থাপত্রের কপি দেখান। এরপর তাকে ছেড়ে দেয়। সেখান থেকে রফিকুল ইসলামের একই গ্রামের পরিচিত মারুফ হোসেন নামে এক যুবকের কাছে যান। মারুফ হোসেন দড়াটানার একটি এটিএম বুথে চাকরি করেন। সেখান থেকে চা পান করে আবার ডাক্তার দেখানোর জন্য রওনা হন। কিন্তু তিনি আর বাড়িতে ফিরে যাননি।

এছাড়া তার কাছে থাকা ব্যবহৃত মোবাইল ০১৭৩২-৪১৪০৭৭ এবং ০১৬২১-৯০৬৯৩৩ নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়। তার পরিবারের ধারণা কোন দুস্কৃতকারীরা তার বাবাকে আটক করে কোন অসৎ উদ্দেশ্য হাসিল করার চেষ্টা করতে পারে।

শারমিন নাহার পিতার সন্ধানের জন্য প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেছেন।