যশোরে সাড়ে ৩ কোটি টাকার ভারতীয় পান ও ডলারসহ আটক ১

Img

বিজিবি সদস্যরা যশোরে আলাদা অভিযানে প্রায় সাড়ে তিন কোটি টাকার ৯ ট্রাক ভারতীয় পান এবং সাড়ে ৬৫ হাজার ইউএস ডলার জব্দ করেছে।

আজ বুধবার যশোরের ৪৯ বিজিবির পরিচালক লে. কর্নেল সেলিম রেজা সাক্ষরিত প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, গত ২৬ নভেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে যশোর-বেনাপোল সড়কের নতুনহাট বাজার থেকে ৯টি ট্রাক জব্দ করে। ওই ট্রাকগুলোতে ৩ কোটি ৪১ লাখ ৬০ হাজার টাকা মূল্যের ৫৮ হাজার ৩শ’ কেজি ভারতীয় পান পাতা ছিল।

একটি চক্র দীর্ঘদিন ধরে ভারত থেকে শুল্ক ফাঁকি দিয়ে দেশে পান পাতা নিয়ে আসছে। গোপন সূত্রে সংবাদ পেয়ে নতুনহাট বাজারে দাড়িয়ে পানপাতা ভর্তি ৯টি ট্রাক জব্দ করা হয়। পরে মামলা হওয়ার পর পান গুলো বিভাগীয় শুল্ক গুদামে বুধবার জমা দেয়া হয়েছে।

অপর এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, বুধবার বিকেলে বেনাপোল বাসস্ট্যান্ডে সোহাগ পরিবহন কাউন্টারের সামনে থেকে সজিব (২৮) নামে এক যুবককে আটক করে বিজিবি। পরে তার দেহ তল্লাশি করে ৫৫ লাখ ৫৯ হাজার টাকা মূল্যের ৬৫ হাজার ৪শ’ ইউএস ডলার জব্দ করা হয়। সজিব শরিয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার নড়িয় গ্রামের বাচ্চু মিয়ার ছেলে। সজিব একজন গুন্ডি ব্যবসায়ী বলে বিজিবি জানিয়েছে।

পূর্ববর্তী সংবাদ

খুলনায় গোলাবারুদ ও মাদকসহ আটক ১

খুলনায় বিপুল পরিমাণ গোলাবারুদ, বিদেশি মদসহ মো. মাসুদ রানাকে আটক করেছে র‌্যাব-৬ এর সদস্যরা।  বুধবার (২৭ নভেম্বর) দুপুরে মিনা কামালের রূপসা উপজেলার বাগমারা গ্রামে এ অভিযান চালানো হয়। এসময় জেলার রূপসা উপজেলার চাঞ্চল্যকর সারজিল ইসলাম সংগ্রাম হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামি মোস্তফা কামাল ওরফে মিনা কামালের বাসায় অভিযান পরিচালনা করে তার সহযোগী মাসুদ রানাকে আটক করা হয়।

র‌্যাবের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বেলা সাড়ে ১২টার দিকে র‌্যাব-৬ এর একটি বিশেষ অভিযানিক দল মিনা কামালের বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় সেখান থেকে ১৫ রাউন্ড রাইফেলের গুলি, পাঁচ রাউন্ড শর্টগানের গুলি, এক রাউন্ড পিস্তলের গুলি, এক রাউন্ড ওয়ান শ্যুটার গানের গুলি, এক রাউন্ড ওয়ান শ্যুটার গানের খালি অ্যামুনিশন, পাঁচ বোতল ভারতীয় আমদানি নিষিদ্ধ ফেনসিডিল, তিন বোতল বিদেশি হুইস্কি, ছয় প্যাকেট আমদানি নিষিদ্ধ বিদেশী সিগারেট উদ্ধার করা হয়। পরে একই গ্রামের কামালের সহযোগী মাসুদ রানাকে আটক করা হয়েছে।  আটক মোস্তফা কামাল ওরফে মিনা কামাল হত্যা, অস্ত্র, চাঁদাবাজিসহ ১৮টি মামলার আসামি বলে জানা যায়।

২৬ সেপ্টেম্বর দুপুর ২টার দিকে সারজিল ইসলাম সংগ্রামকে রূপসা থানাধীন বাগমারা গ্রামে একটি মোবাইল চুরি সংক্রান্ত ঘটনাকে কেন্দ্র করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার