যশোরে নতুন করে ২৫ জনের করোনা শনাক্ত

বিষয়: করোনাভাইরাস
Img

গত ২৪ ঘণ্টায় যশোরে নতুন করে ২৫ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব শনাক্ত হয়েছে। এবং পুরাতন ২জন রোগীর আবারও করোনা পজেটিভ এসেছে, সব মিলিয়ে ২৭ জনের নমুনা পজেটিভ এসেছে৷ এই প্রথম একদিনে এতো বেশি সংখ্যক নমুনা পজেটিভ হলো৷

আজ বুধবার যশোরে ১৪০টি নমুনা পরীক্ষা করে নতুন ও পুরাতন রোগীর ২৭টি পজেটিভ রিপোর্ট এসেছে৷

যশোরের সিভিল সার্জন ডা.শেখ আবু শাহীন নিশ্চিত করেছেন৷

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) জেনোম সেন্টারের পরীক্ষণ দলের সদস্য ড. তানভীর ইসলাম বলেন, তাদের ল্যাবে আজ যশোরের ১৪০টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ২৭টি পজেটিভ রেজাল্ট দেয়।
এছাড়া নড়াইলের নড়াইলের পরীক্ষা করা একমাত্র নমুনাটি ছিল পজেটিভ। ঝিনাইদহের ৪৫টি নমুনা পরীক্ষা করে একটির ফল পজেটিভ আসে। আর সাতক্ষীরার ৬টি ও মাগুরার ১৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হলে এর সবগুলোই নেগেটিভ ফল দেয়।

সব মিলিয়ে যবিপ্রবি জেনোম সেন্টারে মঙ্গলবার মোট ২১৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ৩০টি নমুনা ছিল পজেটিভ। বাদবাকি ১৮৯টি ছিল নেগেটিভ।

পরীক্ষা সংক্রান্ত তথ্যাদি সংশ্লিষ্ট জেলার সিভিল সার্জন অফিসে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানান ড. তানভীর।

যশোরের সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন বলেন, যবিপ্রবি থেকে আসা পজেটিভ নমুনাগুলোর মধ্যে, সদর উপজেলার ৫টি তার ভিতর জেল খানার ১ জন, শহর তলীর বিরামপুরের ১জন,পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড রেলরোড এলাকার ৩জন, অভয়নগর উপজেলার ১৫জন, শার্শা উপজেলার ১জন, কেশবপুর উপজেলার ২জন, মনিরামপুর উপজেলায় ১জন, চৌগাছা উপজেলায় ১জন৷ ইতিমধ্যে গোটা যশোর জেলাকে ৩টি ভাগে ভাগ করে বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। নতুন করে আক্রান্ত করোনা রোগী বাড়ি কোন এলাকায় পড়ছেন, তা দেখে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

গত মঙ্গলবার থেকে যশোরের ১৭টি এলাকাকে রেড জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। ওই জোন লকডাউন করা হয়েছে। ইয়োলো ও গ্রিন জোনের জন্যও রয়েছে বিশেষ কিছু নির্দেশনা৷

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার