ময়মনসিংহে একসঙ্গে চার ছেলে সন্তানের জন্ম

Img

ময়মনসিংহের সদর উপজেলায় এক প্রসূতি মা একসঙ্গে জন্ম দিয়েছেন চার ছেলে সন্তানের। গতকাল রোববার বিকেলে উপজেলার কমিউনিটিবেজড মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, বাংলাদেশে (সিবিএমসিবি) সিজারিয়ানের মাধ্যমে তাদের জন্ম হয়।

তবে মা ও তিন নবজাতক সুস্থ থাকলেও শ্বাসকষ্ট রয়েছে আরেকটি নবজাতকের। ৭২ ঘণ্টা অতিবাহিত না হলে তারা ঝুঁকিমুক্ত কিনা, এটি নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না চিকিৎসকরা।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, ময়মনসিংহ জেলার ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার ঝাটিয়া ইউনিয়নের তেলিহাতি গ্রামের দিনমজুর সিরাজুল ইসলামের স্ত্রী লিপি আক্তার রোববার সকালে হাসপাতালে ভর্তি হন। পরে বিকেলে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে তিনি চারটি ছেলে সন্তান প্রসব করেন।

১৮ নভেম্বর রাত নয়টার পর এ বিষয় জানাজানি হওয়ার পর সেখানে মানুষের ভিড় জমে। নবজাতকগুলোকে হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে গরম কাপড়ে ঢেকে হিটার দিয়ে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দায়িত্বরত চিকিৎসক। নবজাতকদের ফুফু ঝর্ণা খাতুন বলেন, চার সন্তান প্রসব করে মা লিপি আক্তার অনেক খুশি। বাবা সিরাজুল ইসলামের মুখেও হাসির ঝিলিক। তারা নিজেদের সন্তানদের জন্য দোয়া চেয়েছেন।

হাসপাতালের শিশু বিভাগের মেডিকেল কর্মকর্তা শায়লা শাহাদত বলেন, নবজাতকগুলো প্রিম্যাচিউর লো বার্থওয়েট। তাদের ওজন এক দশমিক পাঁচ থেকে এক দশমিক আট কেজি। অথচ সাধারণত নবজাতকসমূহ আড়াই কেজি হওয়ার কথা।

তিনি আরও জানান, নবজাতকদের মা সুস্থ থাকলেও তিনটি শিশুর অবস্থা মোটামুটি ভালো। অন্য নবজাতকটির শ্বাসকষ্ট রয়েছে।

হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. এম করিম খান বলেন, ৪৮ থেকে ৭২ ঘণ্টা না গেলে বোঝা যাবে না, নবজাতকগুলো কেমন থাকবে। ৭২ ঘণ্টা টিকে গেলে নবজাতকদের ঝুঁকিমুক্ত বলা যাবে।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার