ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ মহাসড়কে গৌরীপুর উপজেলার রামগোপালপুরের এক কিলোমিটার রাস্তা মরন ফাঁদে পরিনত হয়েছে।

বিপদজ্জনক এই পিচ্ছিল রাস্তায় চলন্ত গাড়ির নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দোকানে-পুকুরে আর বাড়িতে ঢুুুুকে পড়ছে।

ইটভাটার পরিত্যক্ত মাটি পুরো রাস্তাকে কর্দমাক্ত করে দিয়েছে। রামগোপালপুর বাসস্ট্যান্ডে মঙ্গলবার ট্রাকের চাপায় মাছচাষী রহমান খাঁন (৪৫) ঘটনাস্থলে নিহত হন। মাত্র এক কিলোমিটার এলাকায় একদিনে অর্ধশত গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারায়।

ঈশ্বরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মাহফুজুর রহমান জানান, ইটভাটাতে হ্যান্ডট্রলি দিয়ে মাটি নেয়ার সময় পরিত্যক্ত মাটি হঠাৎ বৃষ্টিতে রাস্তা পিচ্ছিল হয়ে যায়। রামগোপালপুর বাসস্ট্যান্ডে বাস, সিএনজি, মোটর সাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারায়। দ্রুত গতির এসব গাড়ি হঠাৎ নিয়ন্ত্রণ করতে এসে আরো বিপদজ্জক পরিস্থতির শিকার হয়। কৈট্টাপুরি বিলের পাশে ইটভাটার মাটিতে পিচ্ছিল থাকায় ময়মনসিংহগামী অ্যাম্বুলেন্স নিয়ন্ত্রণ পুকুরে পরে যায়।

এদিকে রামগোপালপুরের আক্কাছ আলী জানান, রামগোপালপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে মাত্র এক কিলোমিটারে চারটি ইটভাটা। পুলিশ ও প্রশাসন মাইকিং করার পরেও এসব ভাটায় হ্যান্ডট্রলি দিয়ে মাটি আনা হচ্ছে। হ্যান্ডট্রলির পিছনের ঢাকনা না লাগানোর কারণে পুরো মহাসড়কের মাটি পড়ে। এখন কর্দমাক্ত। আর এ কারণেই রামগোপালপুর বাসস্ট্যান্ডে একদিনে কমপক্ষে ৫০টি গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারায়।

সিএনজি, মোটর সাইকেল, বাস-ট্রাক গতি নিয়ন্ত্রণ করতে না পারায় দোকানপাটে চলে যাচ্ছিলো। পরিস্থিতির অস্বাভাবিক হয়ে যাওয়ায় রাস্তার দু’পাশের দোকানপাট ভয়ে বন্ধ করে দিতে বাধ্য হন। এরপর বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী মহাসড়ক দীর্ঘ সময় অবরোধ করে রাখেন।

রাস্তা থেকে ইটভাটার মাটির কর্দমাক্ত ও পিচ্ছিল অংশ অপসারণ করতে ঈশ্বরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মাহফুজুর রহমানের নেতৃত্বে রামগোপালপুর বাসস্ট্যান্ড মাটি পরিস্কার করা হয়। এরপরেও কৈট্টাপুরি, গাঁওরামগোপালপুর এলাকায় একটি বাস, ৬টি মোটর সাইকেল, ৪টি ইজিবাইক নিয়ন্ত্রণ হারাতে দেখা যায়। এ 

রামগোপালপুরের এসব ইটভাটার বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান এলাকাবাসী। তাদের দাবি শুধু রাস্তা নয়, এলাকার পরিবেশও বিনষ্ট করতে। এক কিলোমিটারে ৪টি ইটভাটা নয়, এ যেন ৪টি বিষের ফ্যাক্টরী এমনটাই দাবি স্থানীয়দের।

সড়ক দুর্ঘটনা এড়াতে টমটম, নসিমন-করিমন, হ্যান্ডট্রলি মহাসড়কে চলাচল নিষিদ্ধ ঘোষণা করে মাইকিং করেন গৌরীপুর থানার অফিসার মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিন। তিনি জানান, সকল যানবাহন সাবধানে চলাচল করার জন্যও নির্দেশনামূলক প্রচারপত্র সাঁটানো হয়েছে।

সড়ক দুর্ঘটনা ও সমসাময়িক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সংক্রান্ত জরুরী সভা করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সেঁজুতি ধর। তিনিও ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের জানান, মহাসড়কে দুর্ঘটনা প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহনের সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।