বাহরাইনে মুজিব জন্মশতবার্ষিকী, স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠান স্থগিত

করোনাভাইরাস এর ভয়াবহ বিস্তার রোধে বাহরাইন সরকারের জনসমাগম সংক্রান্ত নির্দেশনার প্রক্ষিতে অনুষ্ঠান দুটি স্থগিত করা হয়।

Img

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠান  (১৭ই মার্চ ২০২০) এবং স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠান (২৬শে মার্চ ২০২০) সহ অন্যান্য  সকল অনুষ্ঠান স্থগিত করেছে বাহরাইনে বাংলাদেশ দূতাবাস।  আজ দূতাবাসের এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়েছে। তবে দূতাবাসের অভ্যন্তরে শুধু দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উপস্থিতিতে সংক্ষিপ্ত পরিসরে অনুষ্ঠানগুলে উদযাপন করা হবে। 

করোনাভাইরাসের প্রকোপ স্বাভাবিক হলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠান এবং স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠান পরবর্তীতে সুবিধাজনক সময়ে প্রবাসী বাংলাদেশীদের অংশগ্রহণে বৃহত্তর পরিসরে আয়োজন করা হবে। 

এদিকে আজ দুপরেই বাহরাইন এসে পৌছেছেন নব নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত ড. মোঃ নজরুল ইসলাম। এসময় তাকে রাষ্ট্রীয়ভাবে অভ্যর্থনা জানান বাহরাইনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ দূতাবাস। বাহরানে যোগদানের পূর্বে তিনি ডেপুটি চিফ অব মিশন হিসেবে সৌদি আরবের রিয়াদে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়াও তিনি  অস্ট্রেলিয়া, ইরাক, লেবান, দক্ষিণ কোরায়া  সহ বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশ মিশনে বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করেছেন।

পূর্ববর্তী সংবাদ

করোনার প্রতিষেধক বিক্রির দায়ে দুই যুবকে দুই বছর কারাদণ্ড

নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলায় করোনাভাইরাস সংক্রান্ত প্রতিষেধক বিক্রির কথা বলে মাইকিং করে প্রচারণাকালে দুই যুবককে আটকের পর দুই বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সাজাপ্রাপ্তরা হচ্ছে ঈশ্বরগঞ্জ থানার মধুপুর গ্রামের হাদিস মিয়ার ছেলে রুবেল (২৭) ও কথিত ডাক্তার ফুলবাড়িয়া থানার আশরাফুল হায়দারের ছেলে রাশেদুল ইসলাম (৩৫)।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কেন্দুয়া উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আল ইমরান রুহুল ইসলাম মোবাইল কোর্ট বসিয়ে এই সাজা প্রদান করেন।

কেন্দুয়া থানার ওসি মো. রাশেদুজ্জামান জানান, দুই যুবক উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল গন্ডা ইউনিয়নের জামতলা বাজারে করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক পাওয়া যাচ্ছে বলে মাইকিং করে ঔষধ বিক্রি করার খবর পান। তাৎক্ষণিক সেখানে ছুটে গিয়ে হাতে নাতে তাদেরকে আটক করা হয়।

পরবর্তীতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আটককৃতদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের প্রমাণ পেয়ে দুই বছরের কারাদণ্ড প্রদান করেন। মূল হোতা রুবেলকে সশ্রম ও অপর জনকে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হলেও কোন জরিমানা করা হয়নি।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার