মুক্তিযুদ্ধ ও নৈসর্গিক বাংলাদেশ নামক তৈলচিত্র প্রদর্শনী

image
image
image
image

মুক্তিযুদ্ধ ও আবহমান গ্রাম বাংলার প্রকৃতির আলোকে আখতার মাহমুদ কাজল এর তৈলচিত্র  প্রদর্শনী শুরু  হয়েছে গত ২ মার্চ, চলবে ১১ মার্চ পর্যন্ত, সময় সকাল ১১ টা থেকে রাত ৮ টা। প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন গোলাম আরিফ টিপু, একুশে পদক প্রাপ্ত, ভাষা সৈনিক,  বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  বরেণ্য শিল্পী  সমরজিৎ রায় চৌধুরী, সভাপতিত্ব করেন  বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী। 

প্রদর্শনীতে মুক্তিযুদ্ধ ও আবহমান গ্রাম বাংলার প্রকৃতির অসাধারণ দৃশ্যগুলো ফুটিয়ে তুলেছেন শিল্পী  আখতার মাহমুদ কাজল।  

প্রতিদিন শত শত দর্শনার্থী এসব দৃশ্য দেখতে আসছেন জাতীয় চিত্রশালার গ্যালারী ৬ এ।

পূর্ববর্তী সংবাদ

চুয়াডাঙ্গায় ট্রাকের ধাক্কায় প্রাণ হারালেন এসআই

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলায় ট্রাকের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী পুলিশের উপপরিদর্শক এসআই মিল্টন সরকার (৩০) নিহত হয়েছেন।রোববার রাত পৌনে ১০টার দিকে উপজেলার ওদুদ শাহ ডিগ্রি কলেজের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মিল্টন সরকার ঝালকাঠি জেলার নলছিটি থানার রানপাশা গ্রামের সুভাষ চন্দ্র সরকারের ছেলে। তিনি দামুড়হুদা মডেল থানায় উপপরিদর্শক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।মিল্টনের মোটরসাইকেলের পেছনে থাকা আরোহী কনস্টেবল দীপক জানান, থানা থেকে বের হয়ে উপজেলা শহরের ওদুদ শাহ কলেজের কাছে পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি দ্রুতগতির ট্রাক সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে সড়কের ওপরেই ছিটকে পড়ে মিল্টন সরকার। দ্রুতগামী ট্রাকটি এ সময় পালানোর চেষ্টা করলে সামনের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হন মিল্টন সরকার।

দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি আবদুল খালেক জানান, রোববার রাতে নিয়মিত টহল ডিউটির জন্য নিজ মোটরসাইকেলে থানা থেকে বের হন মিল্টন সরকার ও কনস্টেবল দীপক। কিছুক্ষণ পরে সড়ক দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ সদস্যরা পৌঁছান।

কিন্তু সেখানে গিয়ে তাকে আর জীবিত পাওয়া যায়নি। ঘটনার পর থেকে ঘাতক ট্রাক ও চালক পলাতক রয়েছেন।পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম জানান, ২০১৩ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ পুলিশে উপপরিদর্শক পদে যোগদান করেন মিল্টন সরকার। তার বাবাও বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর একজন গর্বিত সদস্য। তার বিপি নং-৮৬১৩১৫১৪১৫। ঘাতক ট্রাকটি আটকের জন্য পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার