মালয়েশিয়া প্রবাসীদের দ্রুত পাসপোর্ট প্রদানে মালয়েশিয়া আ.লীগের স্বারকলিপি

Img

মালয়েশিয়ায় অগ্রাধিকার ভিওিতে দ্রুত পাসপোর্ট প্রদানের আহবান জানিয়েছে মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগ। দেশটিতে বসবাসরত প্রবাসীদের পক্ষে আওয়ামী লীগের আহবায়ক রেজাউল করিম রেজা স্বাক্ষরিত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বরাবরে ২৯ নভেম্বর একটি স্বারকলিপি প্রদান করেছেন। 

রবিবার দুপুরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান কামালের সঙ্গে দেখা করে এ স্বারকলিপি প্রদান করেন। রেজাউল করিম রেজার আহবানে সাড়া দিয়ে মালয়েশিয়ায় দ্রুত পাসপোর্ট প্রদানে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন।

স্বারক লিপি প্রদানের সময় আহবায়ক রেজাউল করিম রেজার সঙ্গে ছিলেন, মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য আব্দুল করিম ও এডভোকেট মিনহাজ উদ্দিন মিরান।

স্বারক লিপিতে উল্লেখ করা হয়েছে, মালয়েশিয়া সরকার সেদেশে অবস্থানরত অবৈধ অভিবাসীদের বৈধ করণের সুযোগ দিয়েছে। শর্ত দিয়েছে পাসপোর্টের মেয়াদ ১৮ মাস থাকতে হবে। মালয়েশিয়াতে এই মুহুর্তে ২ থেকে ৩ লক্ষ বাংলাদেশী অবৈধভাবে বসবাস করছেন। তাদের বৈধ ভিসার ক্ষেত্রে পাসপোর্টের প্রয়োজন। ইতিমধ্যে বাংলাদেশ হাই কমিশনের মাধামে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক পাসপোর্ট আবেদন ইতিমধ্যে জমাপড়েছে। দু:খজনক হলেও সত্য, অন্যান্য দেশ যেমন  ইন্দোনেশিয়া, নেপাল, মায়ানমার, পাকিস্তান , ইন্ডিয়া হাইকমিশন তাদের নাগরিকদের ৩ হেকে ৭ কর্মদিবসের মধ্যে পাসপোর্ট প্রদান করছেন। সেখানে বাংলাদেশ হাই কমিশন ২ থেকে ৩ মাস সময় নিচ্ছেন।

মালয়েশিয় সরকার বৈধ হবার জন্য ৬ মাসের সময়সীমা বেধে দিয়েছে। এমতাবস্তায় পাসপোর্ট পেতে দেরি হলে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বাংলাদেশী রেমিটেন্স যোদ্ধারা ভিসা করতে ব্যর্থ হবে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ যেহেতু জনগণের দল সেই সলের আহবায়ক হিসাবে এবং বাংলাদেশ কমিটানটির পক্ষ হয়ে প্রবাসীদের স্বার্থে ৭ থেকে ১০ কর্মদিবসের মধ্যে পাসপোর্ট প্রদানের ব্যবস্থা করে মালয়েশিয়াতে বসবাসরত অবৈধ অভিবাসীদের রিক্যালিব্রেশন কর্মসূচীতে বৈধ হবার প্রক্রিয়াকে প্রসারিত করতে রেজাউল করিম রেজা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে এ আহবান জানিয়েছেন।

ইদিমধ্যে পাসপোর্টের জন্য  যারা আবেদন করেছেন তাদের পাসপোর্ট অগ্রাধিকার ভিত্তিতে প্রদান করলে  তারা এবং দেশ উভয়ের উপকৃত হবে এবং অবৈধ অভিবাসী বৈধ হয়ে বৈধ পথে রেমিটেন্স পাঠিয়ে দেশকে উপকৃত করবে  বলে রেজাউল করিম রেজা স্বারকলিপিতে উল্লেখ করেন।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার