বিভিন্ন আলোচনা-সমালোচনার পর অভিমানে দেশত্যাগ করার পরেও সমালোচকরা যেন পিছু ছাড়ছে না বাংলাদেশে সারা জাগানো ইসলামিক বক্তা মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারীর ।

সম্প্রতি ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর এক বক্তব্যের পর দেশের সব ওয়াজ মাহফিল বাতিল করে পিএইচডি গবেষণার কাজে আবার ফিরে গেলেন মালয়েশিয়া । ইদানিং আজহারী মালয়েশিয়ায় বিলাসবহুল গাড়ি চড়ে বেড়ান এরকম একটি গুজব ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়া সহ গণমাধ্যমে। যদিও মিজানুর আজহারী এসব মিথ্যাচার বলে সরাসরি  নাকচ করে দিলেন।

মালয়েশিয়ায় এসেও আবার নতুন বিতর্ক জড়ালেন সময়ের আলোচিত-সমালোচিত বক্তা মিজানুর রহমান আজহারী। সোশ্যাল মিডিয়া ও গণমাধ্যমে একটি বিলাসবহুল গাড়ি ড্রাইভ করা অবস্থায় আজহারীর ছবি ভাইরাল হয়েছে, এই ছবি পোস্ট করে মন্তব্য করা হয় আজহারী ওয়াজ মাহফিলে সাদাসিধে সাধারণ জীবনযাপনের কথা বলেন তাহলে উনি কেন পাঁচ কোটি টাকার বিলাসবহুল গাড়িতে চড়েন । সমালোচকরা আরো প্রশ্ন তুলে বলেন তাহলে কি তিনি বিলাসী জীবন আরাম-আয়েশ করার জন্যই মালয়েশিয়ায় ফিরে গেছেন ? ইত্যাদি ইত্যাদি।

বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্য এ ব্যাপারে আজ বুধবার সকালে জানতে চেয়ে এই প্রতিবেদক আজহারীর ব্যক্তিগত মোবাইল ফোনের নাম্বারে একাধিকবার চেষ্টা করেও তার সাথে যোগাযোগ করতে ব্যর্থ হন । জানা যায়, মিজানুর রহমান আজহারী ওনার ব্যক্তিগত মোবাইলে সেভ করা নাম্বার ছাড়া অপরিচিত নাম্বার তিনি রিসিভ করেন না। পড়ে আবারো মালয়েশিয়া প্রবাসী সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে টেক্সট মেসেজ পাঠালে তখন তিনি উত্তর দেন এবং এ সময় তিনি যা বলেন বিস্তারিত এখানে হুবহু তুলে ধরা হলো, সিঙ্গাপুর বিজনেস চেম্বার এন্ড কমার্স এর প্রেসিডেন্ট জনাব শহীদুজ্জামান তরিক ভাইয়ের গাড়ি এটা। গত বছর সিংগাপুরে বাংলাদেশি এলিট সোসাইটির একটি গেদারিং এ আলোচনা রাখার জন্য তারা আমাকে ইনভাইট করেছিল। পাঁচ দিনের সফরে তখন সিঙ্গাপুর গিয়েছিলাম।

ওই সফরে শখ করে সিঙ্গাপুর শহরে তরিক ভাইয়ের গাড়িটা ড্রাইভ করেছিলাম । মিথ্যাবাদীরা এটাকে এখন আমার গাড়ি বানিয়ে দিয়েছে। মিথ্যাচার যেন এদেশের রন্ধ্রে-রন্ধ্রে।