মাছের সাথেও শত্রুতা?

Img

নেত্রকোণার মদন উপজেলার মাঘান ইউনিয়নের দাইরের পাড় (কুড়) বিলে বিষ ঢেলে প্রায় ১৫ লাখ টাকার মাছ মেরে ফেলার অভিযোগ উঠেছে। 

মঙ্গলবার (১২ ডিসেম্বর) রাতে ওই ইউনিয়নের কাতলা গ্রামের মৃত একতু মিয়ার ছেলে জামাল পাশা পূর্ব শত্রুতার জেরে বিষ প্রয়োগের ঘটনা ঘটিয়েছে বলে বিলের ইজারাদার রাসেল মিয়া এ প্রতিনিধি কে জানান।

বুধবার (১৩ জানুয়ারি) বিকেলে সরজমিন দাইরের পাড়(কুড়) বিলে গেলে দেখা যায় সব ধরণের ছোট বড় মাছ মরে ভেসে উঠেছে। 

এ সময় মাঘান গ্রামের আঃ বারেক মিয়ার ছেলে ইজারাদার রুবেল মিয়া জানান, আমি মাঘান গ্রামের ৩ টি মসজিদ কমিটির কাছ থেকে ৭ লাখ ৫হাজার টাকায় এক বছরের জন্য মাছ ধরার জন্য ওই বিল ইজারা নিয়েছি। এখানে বাঁশ, গাছের ডালসহ আমার সাকুল্য প্রায় ১২ লাখ টাকা খরচ হয়েছে। আমার বিলের পাশে জামাল পাশারও বিল রয়েছে। মঙ্গলবার রাতে বিলের মাছ ধরার প্রস্তুতি নিলে কাতলা গ্রামের জামাল পাশা হোন্ডা যোগে আমার বিলের পাড়ে আসে। 

বুধবার সকালে বিলের ছোট বড় সব ধরণের মাছ মরে ভেসে উঠলে বিষ প্রয়োগের বিষয়টি নিশ্চিত হই। আমার যে পরিমাণ ক্ষতিগ্রস্থ এতে আমার সব শেষ হয়ে গেছে। এ ব্যাপারে বুধবার রাতেই মদন থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করবো।

রুবেলের বিলে বিষ প্রয়োগের বিষয়টি জামাল পাশার সাথে মুটোফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমিও বিল ইজারা নিয়ে এ ব্যবসা করি। তার ক্ষতি আমি কেন করতে যাবো। আমার বিরুদ্ধে রাসেল মিয়া মিথ্যা অভিযোগ এনেছে। এ ব্যাপারে আমি কিছু জানিনা।

মদন থানার ওসি মাসুদুজ্জামান জানান, বিলে বিষ দেয়ার বিষয়ে কেউ অভিযোগ করেনি।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার