মাগুরায় স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে ফায়ারম্যান জেলহাজতে

Img

মাগুরার মহম্মদপুরে তৃতীয় শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে গ্রেফতার ফায়ারম্যান এনামুল ফকিরকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে মাগুরা আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়।

আটকৃত এনামুল মহম্মদপুর উপজেলার দীঘা গ্রামের হুমায়ুন ফকিরের ছেলে। তিনি চট্টগ্রাম জেলার বোয়ালখালী ফায়ার স্টেশনে ফায়ারম্যান হিসেবে কর্মরত।

মহম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারক বিশ্বাস জানান, ফায়ারম্যান এনামুল ছুটিতে বাড়িতে এসে বৃহস্পতিবার সকালে ওই শিশুর ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এসময় শিশুটি চিৎকার করলে এনামুল পালিয়ে যায়। পরে শিশুটি তার বাবা-মাকে বিষয়টি জানায়। পরিবারের পক্ষ থেকে বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ এনামুলকে গ্রেফতার করে।

ওসি বলেন, ‘ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য শিশুটিকে মাগুরা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নির্যাতিতা শিশুটির বাবা বাদী হয়ে মহম্মদপুর থানায় মামলা করেছেন। ওই মামলায় শুক্রবার দুপুরে এনামুল ফকিরকে আদালতে সোর্পদ করা হলে, বিজ্ঞ আদালত তাকে জেলহাজতে পাঠিয়েছে।’

পূর্ববর্তী সংবাদ

সাতক্ষীরায় নাতিকে বাঁচাতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দাদার মৃত্যু

সাতক্ষীরায় নাতিকে বাঁচাতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দাদা পরবেশ সরদারের (৬৫) মৃত্যু হয়েছে। আজ সকালে সদর উপজেলার থানাঘাটা গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। পরবেশ সরদার থানাঘাটা গ্রামের বাসিন্দা।

স্থানীয়রা জানান, পরবেশ সরদারের নাতি পিয়াস (১৬) টিনের চালে বিদ্যুতের তারে কাজ করছিল। তখন পিয়াস বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়। তাকে বাঁচাতে দাদা পরবেশ সরদার এগিয়ে গেলে দুইজনই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। গুরুতর অবস্থায় দুইজনকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে দাদা পরবেশ সরদারের মৃত্যু হয়। পিয়াস সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার