মসজিদে বিস্ফোরণ: ৩৫ পরিবারকে ৫ লাখ টাকা করে সহায়তা প্রধানমন্ত্রীর

Img

নারায়ণগঞ্জের তল্লায় মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় নিহত এবং আহত ৩৫ পরিবারের প্রতিটি পরিবারকে ৫ লাখ টাকা করে মোট ১ কোটি ৭৫ লাখ টাকার আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং শাখা থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের চেক স্ব স্ব পরিবারের হাতে তুলে দিতে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসককে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।  

উল্লেখ্য, শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) রাত পৌনে ৯টার দিকে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার পশ্চিমতল্লা এলাকার বাইতুস সালাত জামে মসজিদে ওই বিস্ফোরণ ঘটে। ওই সময় মসজিদে উপস্থিত জনা চল্লিশেক মুসল্লির প্রায় সবাই দগ্ধ হন। এর মধ্যে ৩৭ জনকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে এনে ভর্তি করা হয়েছিল। এর মধ্যে ৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

পূর্ববর্তী সংবাদ

‘অটো প্রমোশন’ নয়, মূল্যায়ন করেই নবম শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হবে শিক্ষার্থীরা

অটো প্রমোশন নয়, পূর্বের মূল্যায়নের ভিত্তিতে জেএসসি শিক্ষার্থীদের পরবর্তী শ্রেণিতে উত্তীর্ণ করা হবে।

বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর), এ কথা জানিয়েছে আন্তঃ বোর্ড সমন্বয় উপকমিটি। 

আরো জানানো হয়, অটো প্রমোশন বলতে কিছু নেই। যে কোনো পদ্ধতিতেই মূল্যায়ন হবে। 

শিক্ষার্থীদের সব শিক্ষকই চিনেন। প্রত্যেক শিক্ষার্থীর মেধা মূল্যায়ন করেই অন্য ক্লাসে উত্তীর্ণ করা হবে। মূল্যায়নের ক্ষেত্রে মার্চ ১৫ পর্যন্ত ক্লাস, সংসদ টিভির ক্লাস ও অনলাইনের ক্লাসকে প্রাধান্য দেয়া হবে। আর পঞ্চম ও ষষ্ঠ শ্রেণীর বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানানো হবে। তবে, এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার বিষয়ে কোনো কিছু জানানো হয়নি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে দেশের সব শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানরা বৈঠকে বসেন। সেই বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে আন্তঃশিক্ষা সমন্বয়ক বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক বলেন, একাদশ থেকে দ্বাদশ শ্রেণিতে উত্তীর্ণের ক্ষেত্রে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের নিজস্ব মূল্যায়ন পদ্ধতিতে শিক্ষার্থীদের পরবর্তী ক্লাসে তুলে দেবে।

প্রসঙ্গত, দেশে করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা স্থগিত রয়েছে। গত ১ এপ্রিল থেকে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরুর কথা ছিলো। তবে কওমি মাদ্রাসা খুলে দেয়া হলেও বাকি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার