ভাল কাজ করে দৃষ্টান্ত রেখে চলেছেন শ্রীমঙ্গল থানা ওসি কে এম নজরুল

image
image

একের পর এক ভাল কাজ করে দৃষ্টান্ত রেখে চলেছেন শ্রীমঙ্গল থানা ওসি কে এম নজরুল। এরই ধারাবাহিকতায় আগুনে পুড়িয়ে দেওয়া অসহায় পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন তিনি।

জানাগেছে, গত শনিবার ভোর রাতে স্বামী-স্ত্রীর দ্বন্দ্বের জেরধরে আপন শ্বশুরের ঘরে আগুন দেয় জামাই আলতাফ মিয়া। পেট্রলিয়াম দ্রব্যের আগুনে জ্বালিয়ে দেয়া বসতঘরটির অবশিষ্ট কিছুই নাই। মুহুর্তের মধ্যে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে রুবি আক্তারের সাজানো গোছানো সংসার।

গত ২৮ এপ্রিল মৌলভী বাজারের শ্রী মঙ্গলের ভুনবীর ইউনিয়নের রাজাপাড়া গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। খবর পেয়ে ছুটে যান শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কে এম নজরুল। তিনি নিঃস্ব পরিবারটির করুন অবস্থা দেখেন এবং ঘটনায় জড়িত জামাতা আলতাফকে দ্রুত গ্রেফতারের আশ্বাস দেন। পরে ওসি নিজ উদ্যেগে পরিবারটির জন্যে একটি ঘর বানিয়ে দেওয়ার আশ্বাস প্রদান করেন। তার আশ্বাস পেয়ে কিছুটা স্বস্থি পায় অসহায় পরিবার।

জানাগেছে, ওসি কে এম নজরুল প্রতিশ্রুতির দুই দিনের মধ্যে অসহায় পরিবারটির জন্য নতুন ঘর তৈরী করে দেন। পুলিশের এ কর্তাকে ঘিরে তার মহানুভবতায় হতবাক এলাকাবাসী। আর তাইতো সকলের দোয়া ও ভালবাসায় সিক্ত হয়ে প্রশংসা কুড়িয়েছেন ওসি কে এম নজরুল।

জানাগেছে, ওসি কে এম নজরুল ইসলাম শ্রীমঙ্গলে যোগদানের পর থেকে চুরি, ডাকাতি, খুন সহ অনান্য অপরাধ দমনে তিনি রয়েছেন কঠোর অবস্থানে।

এ ছাড়া শ্রীমঙ্গলে দুঃস্থ্য ও অসহায়দেরকে প্রতিনিয়ত সাহায্য ও ও সহানুভুতি দিয়ে লালন করছেন কে এম নজরুল। ঈদে ঈদ সামগ্রী, সেলাই মেশিন, নগদ অর্থিক সাহায্য করে দৃষ্টান্ত রেখেছেন ওসি কে এম নজরুল ইসলাম। শ্রীমঙ্গলের সকলের কাছে তিনি মানবিক ব্যাক্তি। সকল শ্রেণীর লোক থানা অফিসে নির্ভয়ে মনখুলে কথা বলতে পারে ৷

এ বিষয় স্থানীয় সাংবাদিক সুলতান মাহমুদ বলেন, সিন্ধুরেখা গ্রামের এক মহিলার স্বামী মারা যাওয়ার পর জায়গা নিয়ে সমস্য হয়েছিল। শ্রীমঙ্গল থানার ওসি নজরুল সাহেবের হস্তক্ষেপে অসহায় মহিলা তার জায়গা ফিরে পেয়েছেন।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার