ভালোবেসে বিয়ে, তবু এমন পরিণতি

Img

প্রেমের সম্পর্ক থেকে বিয়ের বাঁধনে আবদ্ধ হন জান্নাতুল রুবাইয়াত তন্বী নামের যুবতী। এর পরদিনই স্বামীর বাড়িতে নববধূ আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে। বুধবার (২০ জানুয়ারি) বিকেলে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় নববধূর মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

টাঙ্গাইল সদর উপজেলার পশ্চিমপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

জানা যায়, টাঙ্গাইলের বাসাইল পৌরসভার জরাশাহীবাগ এলাকার অগ্রণী ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপক হাশেম খানশুরের মেয়ে স্থানীয় কলেজেরছাত্রী জান্নাতুল রুবাইয়াত তন্বীর (২১)। একই উপজেলার পশ্চিমপাড়ার এলাকার মৃত গিয়াসউদ্দিনের ছেলে সাদেক আহমেদ সাইমের সঙ্গে তন্বীর দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। গতকাল মঙ্গলবার পারিবারিকভাবে তাদের বিয়ে হয়। বুধবার সাদেক আহমেদ সাইম বাজারে গেলে শোয়ার ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় শাড়ি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে তন্বী।


তন্বীর দেবর শাকিল খান জানান, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে ভাবীর (তন্বী) পরিবার বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করলেও মেয়ের প্রতি তারা হয়তো অসন্তুষ্ট ছিলেন। সকালে তাকে খুব মনমরা লাগছিলো। ধারণা করা হচ্ছে, সকালে তার বাবা মায়ের সঙ্গে মোবাইলে ঝগড়া করার পর রাগে ক্ষোভে তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

তন্বীর বাবা হাশেম খান শুর বলেন, বিয়ের মাত্র একরাতের মাথায় মেয়ের মৃত্যুর ঘটনা সত্যিই মর্মান্তিক এবং এটা স্বাভাবিক বলে মেনে নেওয়া যায় না। আত্মহত্যার প্ররোচণায় আমার মেয়েকে প্ররোচিত করা হয়েছে বলে আমার বিশ্বাস। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট হাতে পেলে মামলার বিষয়ে এগিয়ে যাবো।

বাসাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুনুর রশিদ বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। বাসাইল থানায় অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার