ভারতের উত্তরপ্রদেশে জয় শ্রীরাম না বলায় ১৭ বছরের এক মুসলিম কিশোরকে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে পুড়িয়ে নির্মমভাবে হত্যা করেছে কট্টরপন্থী হিন্দুরা।

রাজ্যের চানদেউলি জেলায় রোববার রাতে ওই নৃশংস ঘটনা ঘটে।

মৃত্যুর আগে হাসপাতালের বিছানায় ৬০ শতাংশ পোড়া শরীর নিয়ে ওই কিশোর সাংবাদিকদের সেই বর্বরতার বর্ণনা দিয়ে যায়।

সে জানায়, রোববার রাতে দুধারি সেতু পার হওয়ার সময় চারজন লোক তাকে জয় শ্রীরাম বলতে বলে। সে নিজেকে মুসলিম বলে পরিচয় দিলে তারা তাকে অপহরণ করে।

এদের মধ্যে দুজন তার হাত বেঁধে ফেলে, একজন গায়ে কেরোসিন ঢালে এবং আরেকজন গায়ে দেশলাইয়ের কাঠি দিয়ে আগুন ধরিয়ে জয় শ্রীরাম বলতে বলতে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

তার আর্তচিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে বেনারসের কবির চৌরা হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে পুলিশ এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ১১ জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে।

উল্লেখ্য, ভারতে নরেন্দ্র মোদি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর থেকে কট্টরপন্থী হিন্দুদের হাতে একের পর এক সংখ্যালঘু মুসলমান গণপিটুনিতে মারা যাচ্ছে।