বিত্তশালীরা যাকাত প্রদানে উৎসাহিত হলে দরিদ্রতা বিমোচন হতে সময় লাগবে না

আমিরাতে ড আ ফ ম খালিদ হোসেন

Img

সংযুক্ত আরব আমিরাত আবিরস্থ পালসেস রেস্টুরেন্ট হল রুমে রাউজান ইসলামী নব জাগরণ সংগঠন প্রবাসী শাখার ব্যবস্থাপনায় অত্যন্ত আনন্দঘন মূহুর্তে মানবসেবার লক্ষ্যে প্রবাসীদের সাথে মতবিনিময় সভা সম্পন্ন হয়েছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রবাসী শাখার প্রধান পৃষ্ঠপোষক জনাব ওসমান সাহেব এর সভাপতিত্বে ও মাওলানা রাশেদ নূর এর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বনামধন্য ইসলামীক স্কলার আল্লামা ড আ ফ ম খালিদ হোসেন সাহেব। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বনামধন্য ইসলামীক স্কলার পটিয়া মাদ্রাসার সিনিয়র মুহাদ্দিস মাওলানা ওবাইদুল্লাহ হামজা সাহেব । বিশেষ আকর্ষণ ছিলেন সংগীত শিল্পী আলমগীর বিন কবির পরিচালক নবজাগরণ শিল্পী গোষ্ঠী।

মাওলানা মোজাম্মেল এর কোরআন তেলাওয়াত এর মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয় । এতে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জনাব নজরুল ইসলাম, জনাব নুরুল আমিন, রশিদা শরীফ কল্যাণ ট্রাষ্ট এর মাননীয় চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ বন্ধু ফোরাম আমিরাত এর সম্মানিত সভাপতি জনাব, এম. এ. খায়ের নিজামী।

নবজাগরণ সংগঠন আরব আমিরাত প্রবাসী শাখার সভাপতি জনাব মুহাম্মদ মঈনুল ইসলাম চৌধুরী রুবেল, স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের মহাসচিব মাওলানা মঈনুদ্দীন প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড.আ.ফ.ম. খালিদ বলেন, আমরা সমস্ত মুসলমানেরা ভাল পথে চলার এবং ভাল হওয়ার চেষ্টা করি। তার সাথে সাথে জাকাত প্রদানের পরিপুর্ণতা অর্জন করি। তাহলে দেখবেন অবশ্যই আমাদের সম্পদের হার বৃদ্ধি পাবে এবং দারিদ্রতার হার অনেকটাই বিমোচন হবে তাতে কোন সন্দেহের অবকাশ নেই। আর প্রত্যেক জাকাত প্রদানকারীর পরিপূর্ণ জাকাতের কিছু অংশ ইসলামী নব জাগরণ সংগঠনের কল্যান তহবিলে প্রদান করার আহবান জানান। মানবসেবা নবী স.এর আদর্শ ও মুসলমানদের ঐতিহ্য।তবে,দুঃখের বিষয় আমরা আমাদের ঐতিহ্যকে সময়ের গড্ডালিকা প্রবাহে হারিয়ে ফেলছি। মাশাআল্লাহ্!

ইসলামী নবজারণ সংগঠন অসহায়-অনাথদের পাশে দাড়াচ্ছেন,গরিব-দুঃখীদের সাধ্যানুযায়ী সহযোগিতা করছেন-এটাই ইসলামের শিক্ষা।এটাই ইসলাম শিক্ষা দেয়।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মাওলানা ওবাইদুল্লাহ হামজা সাহেব বলেন সমাজ একটি ব্যাপক শব্দ, একাএকি কারও পক্ষে সমাজ সেবা সম্ভব না ঐক্যবদ্ধ ভাবে সমাজের সেবা করা যায় যেমন কারো কাছে টাকা আছে, কারো কাছে বুদ্ধি আছে, কারো কাছে সময় আছে , কারো কাছে শক্তি আছে, কারো কাছে সুন্দর পরামর্শ আছে তা সংগঠনের মাধ্যমে কাজে লাগাতে পারি। মুমিনের মুখে হাসি ফোটানো দুনিয়ার মধ্যে সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি । পরিকল্পনা করে যদি সমাজ সেবা মূলক কাজ করা হয় তাহলে সেটা আমাদের উপর বড় ধরনের চাপ পড়বে না। বিশেষ করে বর্তমানে দুটি প্রজেক্ট কে অগ্রাধিকার দেওয়া যেতে পারে, যটা বাংলাদেশের এনজিওরা করে থাকে, একটি হচ্ছে স্বাস্থ্য সেবা, একটি হচ্ছে শিক্ষা সেবা । পরিশেষে নবজাগরণের সাথে সম্পৃক্ত থেকে সমাজ সেবা মূলক কাজে শরিক হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বক্তব্য সমাপ্ত করেন।

বিশেষ আকর্ষণ ছিলেন সংগীত শিল্পী আলমগীর বিন কবির এর সংগীত পরিবেশনে। সকল দর্শক সংগীত শুনে আনন্দে মেতে ওঠে । মানবসেবার লক্ষ্যে প্রবাসীদের মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশী প্রবাসীদের মিলনমেলায় পরিণত হয়।আমিরাতে বসবাসরত প্রবাসীরা অত্যন্ত উৎফুল্ল মনে মতবিনিময় সভায় অংশ নেন।

মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এম এ হাসেম, বাংলাদেশ বন্ধু ফোরাম এর সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক সরওয়ার উদ্দিন রনি, কে টিভির অারব অামিরাত প্রতিনিধি ও প্রবাসীর দিগন্তের ব্যুরো চিফ সাংবাদিক মো. নূরুল্লাহ খান শাজাহান, মুহাম্মদ ইউনুস, মাওলানা রেজাউল করিম,মাওলানা নজির, মাওলানা ইরফানুল হক, নবজাগরণ সংগঠন আরব আমিরাত শাখার সিনিয়র সহ সভাপতি ও উত্তর আলীখিল জমিরিয়া তাহফীজুল কোরআন মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক হাফেজ জাকের হোসেন, আল আইন উপকমিটির সভাপতি মাওলানা হোসাইন, প্রবাসী শাখার সহ সভাপতি নুরুল আজিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ ফারুক হোসেন, অর্থ সম্পাদক মুহাম্মদ এরশাদ সোবহান গহিরা, যুগ্ম মহাসচিব মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর গহিরা, প্রচার সম্পাদক মুহাম্মদ আব্দুর রহমান,কার্যকরী সদস্য মাষ্টার শাহ জাহান সিরাজ, মাওলানা মঈনুদ্দীন আব্দুল্লাহপুরী, মুহাম্মদ জাকের উল্লাহ প্রমুখ ।

রাউজান ইসলামী নবজাগরণ আরব আমিরাত প্রবাসী শাখার প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও মতবিনিময় সভার সভাপতি জনাব মুহাম্মদ ওসমান সাহেব এর সমাপনী বক্তব্য শেষে প্রধান অতিথি ড আ ফ ম খালিদ হোসেন সাহেব এর মোনাজাতের মাধ্যমে মতবিনিময় সভা সমাপ্ত করা হয়।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার