জাতীয় কাউন্সিলের প্রস্তুতি নিচ্ছে বিএনপি। দলীয় চেয়ারপারসনকে কারাগারে রেখে সম্মেলন করার বিষয়ে দলের একটি বড় অংশের আপত্তি থাকলেও এ বছরের শেষ দিকে হতে পারে এ কাউন্সিল।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ‘অবিশ্বাস্য পরাজয়ের’ পর ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয়ের অংশ হিসেবে এই কাউন্সিলকে গুরুত্ব দিচ্ছে রাজপথের এ বিরোধী দল। এবারের কাউন্সিলে বিএনপি কেন্দ্রীয় কাঠামোতে বড় রদবদলের আভাস পাওয়া গেছে।

শীর্ষ পদগুলোতে আগের নেতৃত্ব ঠিক থাকলেও দলের জাতীয় স্থায়ী কমিটিতে আসবে বড় ধরণের পরিবর্তন। যুক্ত করা হবে অন্তত ৫ জন নতুন মুখ। বাদ দেয়া হতে পারে দুই থেকে তিনজন নেতাকে। এছাড়া ভাইস চেয়ারম্যান, যুগ্ম মহাসচিব, সাংগঠনিক সম্পাদকসহ সম্পাদকীয় পদগুলোতে অনেকগুলো নতুন মুখ আনা হবে।

এসব পদে প্রাধান্য দেয়া হবে যোগ্য, পোড়খাওয়া, রাজপথের সাহসী নেতৃত্ব, তরুণ ও মেধাবীদেরকে। আন্দোলন সংগ্রামে ব্যর্থ এবং নিস্ক্রিয় নেতাদের কমিটি থেকে বাদ দেয়া হবে। নানা হিসেব নিকেশ শেষে যাদেরকে বাদ দেয়া যাবে না তাদের কম গুরুত্বপূর্ণ পদে পদায়ন করা হবে। বিএনপির একাধিক সূত্রে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।