বার্সাকে উড়িয়ে দিল বায়ার্ন

Img

রবার্ট লেভান্ডোফস্কির দুটি এবং থমাস মুলারের এক গোলে স্বাগতিক বার্সেলোনাকে ৩-০ ব্যবধানে উড়িয়ে দিয়েছে বায়ার্ন মিউনিখ। চ্যাম্পিয়নস লিগের প্রথম ম্যাচে খেলতে নেমেই হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হলো বার্সেলোনাকে।

ম্যাচের ৩৪ মিনিটের মাথায় দূরপাল্লার দুর্দান্ত এক শটে গোল করে বায়ার্নকে লিড এনে দেন থমাস মুলার। ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধের ৫৬ মিনিটে এবং ৮৫তম মিনিটে দুটি গোল করে বায়ার্নের ৩-০ ব্যবধানের জয় নিশ্চিত করেন রবার্ট লেভান্ডোফস্কি। 

মঙ্গলবার চ্যাম্পিয়নস লিগের উদ্বোধনী দিনে গোটা বিশ্বের নজর ছিল বার্সেলোনা ও বায়ার্নের মধ্যকার ম্যাচের উপর। ইউরোপিয়ান ক্লাসিকোর দুর্দান্ত ম্যাচটিতে খাতা কলম এবং মাঠের পারফরম্যান্সের দিক দিয়ে এগিয়ে ছিল বাভারিয়ানরাই। তবে প্রতিপক্ষ দলটি যখন বার্সেলোনা তখন পরিসংখ্যান কিংবা অতীত তেমন পার্থক্য গড়ে দিতে পারে না।

শুরু থেকে বার্সার ওপর চাপ ধরে রেখে একের এক আক্রমণ সাজাতে শুরু করে বাভারিয়ানরা। তবে বার্সাকে এক হাতেই ম্যাচে ধরে রাখেন গোলরক্ষক মার্ক আন্দ্রে টার স্টেগান। ১৯তম মিনিটের মাথায় বেনজামিন পাভার্ডের দুর্দান্ত এক ক্রস ডি বক্সে পেয়ে যান লেরয় সানে। বল পেয়ে দারুণ এক শট করেন গোল বরাবর তবে তার শট সার্জি রবের্তোর গায়ে লেগে দিক পাল্টে যাচ্ছিল জালের দিকেই কিন্তু শেষ পর্যন্ত বার্সার ত্রাতা হয়ে আসেন স্টেগান। এক হাত দিয়ে কোনো রকমে সানের শট ফিরিয়ে বার্সাকে ম্যাচে ধরে রাখে এই জার্মান গোলরক্ষক।

ম্যাচে বার্সার সবচেয়ে বড় সুযোগ আসে ফিলিপ কুতিনহোর কাছ থেকে। ম্যাচের ৬৮তম মিনিটে ডান প্রান্ত দিয়ে বল নিয়ে আক্রমণে উঠে দারুণ এক শট নেন কুতিনহো কিন্তু তার সজোরে নেওয়া শট গোলপোস্টের উপর দিয়ে বেরিয়ে যায়। 

ম্যাচের বাকি সময়টাও বায়ার্নের আক্রমণের পর আক্রমণ দিয়েই শেষ হয়। দারুণ আক্রমণ করলেও গোলের দেখা পাচ্ছিল না আর বাভারিয়ানরা। অবশেষে ম্যাচের ৮৫তম মিনিটে এসে নিজের দ্বিতীয় গোলের দেখা পান লেভা। ডি বক্সের ছয় গজের ভেতর থেকে সার্জ গ্ন্যাব্রির দুর্দান্ত এক শট গোলপোস্টে লেগে ফিরে আসলে তা পেয়ে যান লেভা। আর জেরার্ড পিকে ট্যাকেলের ভেতরেও জায়গা করে নিয়ে বল জালে পাঠিয়ে বায়ার্নকে ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে নেন পোলিশ এই গোলমেশিন।

- সূত্র: সারাবাংলা
প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার