বাংলাদেশে ধর্ষণের প্রতিবাদে স্পেন বিএনপির প্রতিবাদ সভা

Img

দেশব্যাপী হত্যা, ধর্ষণ ও নারীজাতির অবমাননার প্রতিবাদ জানিয়ে সভা করেছে স্পেন বিএনপি। 

শুক্রবার (৯অক্টোবর) দেশটির রাজধানী মাদ্রিদের একটি দেশব্যাপী চলমান ধর্ষণের প্রতিবাদ জানিয়ে অনুষ্ঠিত হয় এই সভা।

ফ্রান্স যুবদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শাওন আহমদের সঞ্চালনায় আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন স্পেন বিএনপির সভাপতি মাহবুবুর রহমান ঝন্টু। 

সভায় বক্তারা বলেন, দেশে বিচারের দীর্ঘসূত্রিতা ও বিচার না হওয়ার একটা সংস্কৃতি তৈরি হয়েছে। বর্তমান সময়ে আমরা লক্ষ্য করছি যে সারাদেশে আশঙ্কাজনকহারে হত্যা ও ধর্ষণের মতো ঘটনা ঘটছে।

প্রতিবাদ সভায় বিএনপি নেতৃবৃন্দের মধ্যে বক্তব্য দেন স্পেন বিএনপির সাধারন সম্পাদক রমিজ উদ্দিন, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক জাকিরুল ইসলাম জাকি, সাংগঠনিক সম্পাদক মানিক ব্যাপারী, স্পেন সেচ্ছাসেবক দলের সাবেক সভাপতি আব্দুল মোতালেব বাবুল, বিএনপি নেতা ওলিউর রহমান প্রমুখ। 
অনুষ্ঠানে টেলিকনফারেন্সে বক্তব্য দেন স্পেন বিএনপির সাবেক সভাপতি ও বর্তমান প্রধান উপদেষ্টা আব্দুল কায়ূম পংকি। 

তিনি নারী ও শিশু নির্যাতনের ঘটনা বাড়ার জন্য সরকারকে দায়ী করে বলেন, “যারা দুষ্কর্ম করছে, অনাচার করছে তাদের পৃষ্ঠপোষক এই সরকার। তাদের পৃষ্ঠপোষক না হলে সমাজের মধ্যে এই সম্ভ্রমহানি, নারী ও শিশু নির্যাতন বার বার কেন হবে?” তিনি আরো বলেন, ‘এ অবস্থার জন্য সম্পূর্ণ দায়ী আজকের আওয়ামী লীগ সরকার। তারা এই সমাজে ভয়ঙ্কর নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে। সারা দেশে যারা ধর্ষণ, অত্যাচার, অবিচারের সঙ্গে যুক্ত রয়েছে তারা এই সরকারের আশ্রয়-প্রশ্রয় পাচ্ছে। এ কারণেই তারা আরও বেশি অপকর্ম করতে উৎসাহিত হচ্ছে।’

 সভাপতির বক্তব্যে মাহবুবুর রহমান ঝন্টু বলেন, মানুষের যে নূন্যতম বেঁচে থাকার অধিকার, একটা নারীর, একটা শিশু বেঁচে থাকার যে অধিকার, সে অধিকার থেকে সরকার বঞ্চিত করেছে। এ সমাজ থেকে প্রতিকার পেতে, আমাদের গণতান্ত্রিক অধিকার ফিরিয়ে আনা এবং নিজেদের রক্ষা করতে আমাদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার বিকল্প নেই।
সভায় বাংলাদেশের নারীদের নিরাপত্তা ও চলাফেরার নিশ্চিতসহ নির্যাতনের ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্ত শাস্তির দাবি জানানো হয়।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার