বরিশালে অস্থির আলুর বাজার, বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকায়

Img

হঠাৎ উচ্চমূল্যের শিকার আলুর সর্বোচ্চ দাম নির্ধারণ করে দিয়েছে সরকার। সারাদেশের মত বরিশালেও ভোক্তা, আড়ৎ ও কোল্ডস্টোরেজ পর্যায়ে এই নির্দেশনা মানছে না কেউ।

কৃষি বিপণন অধিদফতর থেকে জেলা প্রশাসকদের ভোক্তা পর্যায়ে সর্বোচ্চ ৩০ টাকা কেজি দরে আলু বিক্রির বিষয়টি নিশ্চিত করতে বলা হয়। সেই সঙ্গে কোল্ডস্টোরেজ পর্যায়ের সর্বোচ্চ ২৩ টাকা এবং আড়তে ২৫ টাকা কেজি আলু বিক্রির বিষয়টি নিশ্চিত করতে বলা হয়।

তবে খুচরা পর্যায়ে কেজি ৩০ টাকা দরে বাজারে মিলছে না আলু। খুচরা পর্যায়ে প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪৮ থেকে ৫০ টাকা। বরিশালের পোর্টরোড সর্ববৃহৎ পাইকারি বাজারে বিক্রি হচ্ছে ৪২ থেকে ৪৫ টাকা।

যদিও বাজারে আলুর দাম সহনীয় রাখতে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর এবং জেলা প্রশাসন বরিশালের বাজারে তদারকি শুরু করেছেন। কিন্তু তাতেও কমছে না আলুর দাম।

গত শনিবার বিকেলে বরিশাল শহরের পেঁয়াজ পট্টিতে মোল্লা ট্রেডার্স ও পায়েল এন্টারপ্রাইজ নামক দুটো পাইকারি আলু বিক্রির দোকানকে অধিক মূল্যে বিক্রির অপরাধে ভোক্তা অধিকার আইনে মোট ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন জেলা প্রশাসনে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিয়াউর রহমান।

তবে আজ (১৮ অক্টোবর) রোববার সকাল থেকে নগরীর রূপাতলী, নথুল্লাবাদ, বাংলাবাজার খুচরা দোকানে আলু ৫০ টাকা দামে বিক্রি করা হচ্ছে।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার