বছরের শেষ ‘ফ্লাওয়ার’ ‍সুপারমুনের দেখা মিলবে আজ

Img

চলতি বছরের শেষ সুপারমুনের দেখা মিলবে আজ বৃহস্পতিবার (৭ মে)। এই বছরে আর কোনো সুপারমুনের দেখা মিলবে না। এই চাঁদ দেখতে ফুলের মতো হওয়ায় এর নাম দেয়া হয়ছে ‘ফ্লাওয়ার’ সুপারমুন। শুধু ফ্লাওয়ার মুন নয়, এই চাঁদকে মাদারস মুন, মিল্ক মুন বা অন প্লান্টিংও বলা হয়।

এই বিশেষ সময়ে চাঁদ একেবারে পৃথিবীর কাছে চলে আসবে। তাই সাধারণের থেকে ৬ শতাংশ বেশি উজ্জ্বল থাকবে চাঁদ। মহাজাগতিক দৃশ্যটি ৭ মে আমাদের অঞ্চলে দেখা যাবে বলে জানাচ্ছে বিভিন্ন জোর্তিবিজ্ঞানের ওয়েবসাইট।

নিজের কক্ষপথ ধরে পৃথিবীর চারিদিকে প্রদক্ষিণ করে চাঁদ। আর এই প্রদক্ষিণ করতে করতেই একটা নির্দিষ্ট সময় পৃথিবীর খুব কাছাকাছি চলে আসে চাঁদ। সেই সময় আকাশে একটা বিশাল আকারের থালার মতো দেখায় চাঁদকে। একেই বলে সুপারমুন। ক্যালেন্ডার অনুযায়ী প্রতি মাসে একটা সময় চাঁদ ও পৃথিবীর দূরত্ব সবচেয়ে কম হয়। তাই প্রতি মাসেই সুপারমুনের একটা আলাদা নাম থাকে। এ বছরও জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রতিটা সুপারমুনের আলাদা নাম রয়েছে। এ মাসে যেটি দেখা যাবে, সেটির নাম ‘ফ্লাওয়ার মুন’। এর আগে এপ্রিলে রাতের আকাশকে মোহময়ী করে তুলেছিল পিংক বা গোলাপি সুপারমুন।

পূর্ববর্তী সংবাদ

করোনায় বিশ্বব্যাপী মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২ লাখ ৬৫ হাজার ছাড়িয়েছে

মহামারি করোনাভাইরাসে বৃহস্পতিবার (৭ মে) সকাল পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২ লাখ ৬৫ হাজার ৮৪ জনে দাঁড়িয়েছে। নতুন আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও বিশ্বব্যাপী আক্রান্তদের মধ্যে বর্তমানে স্থির অবস্থায় রয়েছেন ৯৮ শতাংশ।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে কোভিড-১৯ সংক্রমিত ২২ লাখ ৫৪ হাজার ৮৭২ জনের মধ্যে ২২ লাখ ৬ হাজার ৬৬৭ জন স্থির অবস্থায় রয়েছেন।

এছাড়া, ৪৮ হাজার ২০৯ জন গুরুতর অবস্থায় রয়েছেন, যা মোট রোগীর মাত্র দুই শতাংশ।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত কোভিড-১৯ এ মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৩৮ লাখ ২২ হাজার ৯৫১ জন। আক্রান্তদের মধ্যে এ পর্যন্ত ১৩ লাখ ৯ হাজার ২৯৫ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

উল্লেখ্য, গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।
 

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার