বগুড়ায় মেয়ের ধর্ষণকারীদের ফাঁসি চেয়ে বাবার একক মানববন্ধন

Img

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় মেয়ের সংঘবদ্ধ ধর্ষকদের ফাঁসির দাবিতে একক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন হতদরিদ্র অসহায় এক বাবা। এ সময় মুখে কালো কাপড় বেঁধে, বুক বরাবর হাতে ঝোলানো পোস্টার নিয়ে এক ঘণ্টা সময় ধরে নির্বাক দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায় তাকে। 

মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে ধুনট শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে দাঁড়িয়ে একক মানববন্ধন করেন তিনি।

এ সময় তিনি শুধু উপস্থিত গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন। তিনি জানান, আমার মেয়ে (১২) স্থানীয় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণিতে লেখাপড়া করতেন। আমি জীবিকার তাগিদে স্ত্রীকে নিয়ে ঢাকায় অবস্থান করতাম। আমার মেয়ে গ্রামে তার দাদা-দাদির নিকট থাকতেন। গত ৬ জুন রাত ১০টার দিকে আমার মেয়ে তার দাদার ঘরে টিভি দেখছিল। এ সময় তার দাদা-দাদি কেউ বাড়িতে ছিলেন না।

এ সুযোগে আমার প্রতিবেশী উপজেলার রুদ্রবাড়িয়া গ্রামের মজিদ শেখের ছেলে ফজল ও তার ছোট ভাই নয়ন ঘরে ঢুকে আমার মেয়েকে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করেছি। পুলিশ দুই ভাইকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠিয়েছে। এই মামলায় ধর্ষক দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আসামিপক্ষের লোকজন মামলা তুলে নেওয়ার জন্য আমাকে নানা ভাবে হুমকি ধামকি দিচ্ছে। তাদের ভয়ে মেয়েটিকে গ্রামের বাড়ি থেকে ঢাকায় নিয়ে এসেছি। তাদের বিরুদ্ধে থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। আসামিপক্ষ আমার বিরুদ্ধে আদালতে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে। দ্রুত বিচারের মাধ্যমে আসামিদের ফাঁসি চাই। ফাঁসির দাবি করে ছাপানো পোস্টারগুলো তিনি বগুড়া জেলা আদালত প্রাঙ্গণসহ জেলা ও উপজেলার বিভিন্ন স্থানে লাগিয়েছেন।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার