ফেনীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে নিহত ১

Img

ফেনীর দাগনভূঞায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে একজন নিহত হয়েছেন।

রোববার (২১ এপ্রিল) দুপুরে উপজেলার আলাইয়াপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম মো. কামরুল ইসলাম (২৮)। তিনি ওই গ্রামের আইয়ুব আলীর ছেলে।

পুলিশ জানায়, নিজ বসতঘরে কাজ করার সময় বিদ্যুতায়িত হয় মো. কামরুল ইসলাম গুরুতর আহত হন। পরে তাকে স্থানীয়রা ফেনী সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ফেনী মডেল থানার এসআই কাজী গোলাম মহিউদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চত করে বলেন, নিহতের লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

পূর্ববর্তী সংবাদ

মানবতার লড়াইয়ে রক্তদাতাদের ভিড়

ধারাবাহিক বিস্ফোরণের ঘটনায় ফের দুনিয়া জুড়ে প্রবল আলোচিত একদা জঙ্গি নাশকতার কেন্দ্র দ্বীপরাষ্ট্র শ্রীলঙ্কা৷ পরপর ৬ বার কেঁপে গিয়েছে দেশটির একাধিক গির্জা, পাঁচতারা হোটেল৷ নিহতের সংখ্যা বাড়ছে লাফিয়ে৷ শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছে৷

বিবিসি, এএফপি, রয়টার্স ও স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের খবর আরও বহু জখম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন৷

যে উগ্র বিচ্ছিন্নতাবাদী এলটিটিই-সন্ত্রাসবাদে বারে বারে রক্তাক্ত হয়েছে শ্রীলঙ্কা সেই দেশে ফের নাশকতায় মৃতদেহের স্তূপ তৈরি হয়েছে৷ কারা হামলা চালিয়েছে তা পরিষ্কার নয়৷ তবে এরই মাঝে অন্য এক লড়াই শুরু হল৷ সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে মানবতার লড়াইয়ে রক্তদাতাদের ভিড় দেখা যাচ্ছে হাসপাতালগুলিতে৷

রাজধানী শহর কলম্বোর বিভিন্ন হাসপাতালে দেখা দিতে শুরু করেছে রক্ত সংকট৷ কারণ বিস্ফোরণে মারাত্মক জখমদের বাঁচানোর আপ্রাণ চেষ্টা শুরু হয়েছে৷

চিকিৎসক-চিকিৎসা কর্মীরা ঝাঁপিয়ে পড়েছেন৷ বোতল বোতল রক্ত লাগছে মুমূর্ষুদের জন্য৷ যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে এই রক্তের চাহিদা এতই বেড়েছে যে বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংকের মজুদ রক্তের পরিমাণ কমতে শুরু করেছে৷

এই অবস্থায় জনগণ এসে দাঁড়ালেন৷ বহু মানুষ ভিড় করেছেন বিভিন্ন ব্লাড ব্যাংকের সামনে৷ তাঁরা চাইছেন রক্ত দান করতে৷ সেই রক্ত কাজে লাগবে বিস্ফোরণে জখমদের চিকিৎসার জন্য৷

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার