পুলিশের চাকুরিতে আসাটা আমার ভুল সিদ্ধান্ত ছিল না

Img

উদ্ধার!
দিনের পর দিন আঠার মতো লেগে থাকার পর অবশেষে ফল প্রাপ্তির ক্ষণ। দুই নারী তাদের তিন শিশুসন্তানসহ অপহৃত হবার দুই মাসের মাথায় অবশেষে তাদেরকে উদ্ধার করতে সক্ষম হলাম আমরা। রাঙামাটি জেলার দুর্গম গিলাছড়ি পার্বত্য এলাকায় গতকাল রাত ১টা থেকে ভোর ৪টা পর্যন্ত পরিচালিত এই অভিযানের সাফল্যের পেছনে মূল নিয়ামক ভূমিকা পালনকারী স্থানীয় নারী জাহানারা এবং রাঙামাটির কাউখালি থানা পুলিশের প্রতি আমাদের সীমাহীন কৃতজ্ঞতা। 

তাঁদের সাহসী ভূমিকা না থাকলে এই সাফল্য হয়তো আমাদের অধরাই রয়ে যেত।

বিশেষ ধন্যবাদ, এসআই সুজনসহ আমার অন্যান্য টিম সদস্যদেরকে। আপনারা গভীর রাতে ঝুঁকি নিয়ে আমার সাথে দুর্গম সেই পাহাড়ি এলাকায় যেতে রাজি হয়েছিলেন বলেই ৫টি নিরীহ প্রাণ নতুন জীবনের দিশা খুঁজে পেয়েছে। যা হোক, শিশু তিনটিকে কোলে করে যখন আমরা নীল ইউনিফর্মধারী কয়েকজন মানুষ সার বেঁধে পাহাড়ের ঢাল বেয়ে নামছিলাম, তখন একটি উপলব্ধিই বারবার আমার মনে দোলা দিয়ে যাচ্ছিলো- 'নাহ! দিনরাত নানা জনের নানারকম কথা হজম করা লাগলেও সম্ভবত পুলিশের চাকুরিতে আসাটা আমার ভুল সিদ্ধান্ত ছিল না একদমই।

Md. Anwar Hossan (Shamim Anwar)
এএসপি (রাউজান-রাঙ্গুনিয়া সার্কেল)।
চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার