পাইকগাছায় সন্ত্রাসী হালিমের বিরুদ্ধে থানায় এলাকাবাসীর গণস্বাক্ষর

Img

পাইকগাছার উপজেলার কুখ্যাত সন্ত্রাসী গড়ইখালীর হালিম শিকারী(৪৪) এর বিরুদ্ধে থানায় গণস্বাক্ষরিত অভিযোগ দিয়েছেন এলাকাবাসী। সম্প্রতি অস্ত্র মামলায় জামিন পেয়ে এলাকায় এসে ফের চাঁদাবাজীসহ নানা অপকর্মে জড়িয়ে পড়ায় এলাকাবাসী তার হাত থেকে রক্ষা ও দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবীতে থানা ওসি বরাবর গণস্বাক্ষরিত এ অভিযোগ করেছে।

সূত্র জানায়, তার নামে পাইকগাছা, কয়রা ও ডুমুরিয়াসহ বিভিন্ন থানায় অস্ত্র-গুলি, ডাকাতি, বন আইন ও চাঁদাবাজীসহ বিভিন্ন ধারায় ১০ টি মামলা, ৯ টি জিডি ও চেয়ারম্যানের দপ্তরে কয়েকটি অভিযোগ রয়েছে। 

উপজেলার গড়ইখালী ইউপি’র হোগলার চক গ্রামের বাসিন্দা হালিম শিকারী একটি অস্ত্র মামলায় জামিনে এসে এলাকায় আবারও ত্রাস সৃষ্টি করে। শুরু করে চাঁদাবাজীসহ সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড। ফলে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী বিক্ষুব্ধ হয়ে তার বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার বিকেলে পাইকগাছা থানায় গনস্বাক্ষরিত অভিযোগ করেছে। তার নামে তিনটি অস্ত্র, তিনটি বন আইনে মামলা, একটি ডাকাতিসহ পাইকগাছা থানাসহ কয়েকটি থানায় দশটি মামলা, নয়টি জিডি ও গড়ইখালী ইউপি চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে কয়েকটি লিখিত অভিযোগ আছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করেন ভুক্তভোগী এলাকাবাসী।

এব্যাপারে স্থানীয় লতিফ সরদার বলেন, হালিম শিকারী একটি অস্ত্র মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামি। কয়েকদিন পর জামিনে এসে খুব বেপরোয়া হয়ে উঠে। আমরা তার শাস্তি চাই।

ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন বিশ্বাস জানান, হালিম শিকারীর বিরুদ্ধে  অভিযোগের অন্ত নেই। সে কয়েকবার অস্ত্র ও গুলিসহ পলিশের কাছে হাতে নাতে ধরা পড়েছে। 

পাইকগাছা থানার ওসি এজাজ শফী জানান, গড়ইখালী থেকে শত শত লোক থানায় এসে গণস্বাক্ষরিত লিখিত অভিযোগ করেছে। তাদের বিক্ষোভ করতে দেয়া হয়নি। তবে তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার