পাইকগাছায় অনির্বাণ লাইব্রেরির উদ্যেগে মেধাবী ছাত্রীদের সাইকেল বিতরণ

Img

খুলনার পাইকগাছার হরিঢালীতে অনির্বাণ লাইব্রেরির উদ্যেগে মেধাবী ছাত্রীদের মাঝে সাইকেল বিতরণ করা হয়েছে।

শনিবার সকাল ১১ টায় লাইব্রেরির নিজস্ব ভবনে অনুষ্ঠিত সাইকেল বিতারণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, খুলনা জেলা পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহ (বিপিএম)।  

অনির্বাণ নারী সহায়তা সেলের সভাপতি কবরী সরকারের সভাপতিত্বে ও অনির্বাণ লাইব্রেরীর সাধারণ সম্পাদক প্রভাত দেবনাথনাথের পরিচালনায়, বিশেষ অতিথি ছিলেন পাইকগাছা সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ মিহির বরণ মন্ডল, কপিলমুনি কলেজ অধ্যক্ষ হাবিবুল্লাহ বাহার, অধ্যক্ষ আব্দুর রহমান, অনির্বাণ লাইব্রেরীর সভাপতি সাবেক অধ্যাপক কালিদাস চন্দ্র চন্দ্র, পাইকগাছা থানা ওসি এজাজ শফি, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান রশিদুজ্জামান মোড়ল, অধ্যাপক তাপস সাধু, চেয়ারম্যান কওসার আলী জোয়াদ্দার, প্রধান শিক্ষক রহিমা আক্তার শম্পা, প্রেসক্লাব সম্পাদক আঃ রাজ্জাক রাজু, পাইকগাছা প্রেসক্লাব সহ সভাপতি আঃ আজিজ, সহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।
 

পূর্ববর্তী সংবাদ

কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর নির্মাণাধীন ভাস্কর্য ভাঙচুর, প্রতিবাদে বিক্ষোভ

ভাস্কর্য নিয়ে বিতর্কের মধ্যে কুষ্টিয়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্মাণাধীন একটি ভাস্কর্য ভাঙচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার রাতের আঁধারে ওই ভাস্কর্যের ডান হাত, পুরো মুখমণ্ডল ও বাঁ হাতের অংশ বিশেষ ভেঙে ফেলে কে বা কারা।

শনিবার সকালে বিষয়টি দৃষ্টিগোচর হলে শহরের বঙ্গবন্ধু সুপার মার্কেট চত্বর ও থানা মোড়ে আওয়ামী লীগ, জাসদসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক এবং সামাজিক সংগঠন বিক্ষোভ সমাবেশ, মিছিল ও মানববন্ধন করে।

কুষ্টিয়া পৌরসভার উদ্যোগে শহরের ব্যস্ততম পাঁচ রাস্তার মোড়ে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণের কাজ চলছে। পৌরসভা কর্তৃপক্ষ জানান, একই বেদীতে বঙ্গবন্ধুর তিন ধরনের তিনটি ভাস্কর্য নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

এছাড়া এই বেদীতে জাতীয় চার নেতার ভাস্কর্যও নির্মাণ করা হবে। এরই মধ্যে বঙ্গবন্ধুর একটি ভাস্কর্য স্থাপনের কাজ প্রায় শেষ হওয়ার পথে।

শুক্রবার রাতে দুর্বৃত্তরা এই ভাস্কর্যটির ডান হাত ও পুরো মুখমণ্ডল, বাঁ হাতের অংশ-বিশেষ ভেঙে ফেলে। বিষয়টি নিয়ে আওয়ামী লীগ ও জাসদের নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এসএম তানভির আরাফাত জানান, সিসি টিভির ফুটেজ দেখে ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করা হয়েছে। শিগগির তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।

প্রসঙ্গত, বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে সম্প্রতি সরকার রাজধানীর ধোলাইপাড়ে বঙ্গবন্ধুর একটি বড় ভাস্কর্য নির্মাণের কাজ শুরু করে। তবে হেফাজতে ইসলামসহ ধর্মীয় বিভিন্ন সংগঠন ভাস্কর্যকে মূর্তির সঙ্গে তুলনা করে এর প্রতিবাদ জানায়। যদিও সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, ভাস্কর্য ও মূর্তি এক নয়। দুটির মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে সরকারের সঙ্গে ইসলামপন্থীদের বিরোধ চলছে।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার