পাইকগাছার হরিঢালীতে বিট পুলিশিং এর সভা অনুষ্ঠিত

Img

পাইকগাছা উপজেলার ১ নং হরিঢালীতে বিট পুলিশিং এর সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

শনিবার সকাল ১১টায় হরিঢালী বিট অফিসার এস আই মনিরুজ্জামান হাজরার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এ এসপি সার্কেল মোঃ হুমায়ুন কবির।

জানাগেছে, নারী ও শিশু নির্যাতন এবং ধর্ষণ রোধে সারা দেশব্যাপী বিট পুলিশিং কার্যকরী ও যুগোপযোগী পদক্ষেপ গ্রহণের অংশ হিসাবে উপজেলার হরিঢালীতে এ কার্যক্রম দুর্বার গতিতে এগিয়ে নেয়ার প্রত্যয় ব্যাক্ত করে প্রধান অতিথি উপস্থিত সর্বস্তরে মানুষের জ্ঞাতার্থে বলেন, নারী নির্যাতন ও ধর্ষণ বন্ধে সরকার নতুন আইন পাশ করেছে। আপনারা এমন কিছু করবেন না যে নতুন এ আইনে আপনাদের উপর বর্তাবে। আজ থেকে এই ম্যাসেজটি বিট পুলিশিং এর মাধ্যমে সচেতনতার জন্য আমরা আপনাদের সজাগ করে দিচ্ছি। আমাদের আজকের স্লোগান "নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বন্ধ করি নারী বান্ধব দেশ গড়ি"।

এ সময় অন্যান্নদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বীর মুক্তিযুদ্ধা যথাক্রমে শেখ দিদার হোসেন, আব্দুল ওয়াদুদ, দেব প্রসাদ আচার্য, আব্দুল লতিফ সহ অন্যান্য মুক্তিযোদ্ধা বৃন্দ, ইউনিয়ন পুলিশিং কমিটির সাধারণ সম্পাদক রাজিব গোলদার। এছাড়া আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন পেশাজীবি মানুষ ও ছাত্রছাত্রীরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

পূর্ববর্তী সংবাদ

কুমিল্লায় দূর্গা পূজাকে সামনে রেখে ব্যাস্ত সময় পার করছে প্রতীমা কারিগরে

হিন্দু ধর্মের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দূর্গা পূজাকে সামনে রেখে ব্যাস্ত সময় পার করছে প্রতীমা কারিগরেরা। পূজা যত ঘনিয়ে আসছে কাজের চাপ ও তত বাড়ছে তাদের। পূজা উৎযাপন কমিটি জানায়, করোনার কারণে সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে এবছর পূজা উৎযাপন করা হবে।

প্রতীমা কারিগরেরা জানায়, আগামী ২১ অক্টোবর থেকে ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে এই পূজা। মা কে বরণ করতে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে হিন্দু সম্প্রদায়ের সকলে। ব্যাস্ত সময় পাড় করছে প্রতিমা কারিগরেরা। সকল কাজ প্রায় সম্পন্ন এখন রং দিয়ে সাজানো হচ্ছে মা দূর্গাকে। 

প্রতীমা কারিগরেরা জানায়, প্রতি বছরেরর ন্যায় এবার ব্যাপক অকারে পূজা উৎযাপন হচ্ছেনা করোনার কারণে প্রতীমার ওর্ডার ও তাই এবছর কম ।

পূজা উৎযাপন কমিটি জানায়, করোনার কারণে এবছর সামাজিক দূরত্ব মেনে পূজা উৎযাপন করা হবে। করোনা মোকাবেলায়  জীবানু নাশক স্প্রে ছিটানো সহ সকল প্রকার প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে।

এবছর কুমিল্লায় ৮০৮টি মন্ডপ স্থাপন করা হবে। এর মধ্যে কুমিল্লা মুরাদনগরে সবচেয়ে বেশি ১৪৪টি মন্ডপ স্থাপন করা হবে।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার