নেত্রকোণায় ট্রাকের চাপায় ব্যাংক কর্মকর্তা নিহত

Img

নেত্রকোণায় ট্রাক চাপায়  ব্যাংক কর্মকর্তা আবু বক্কর সিদ্দিক ওরফে জামাল (৩৬) নামের একজনের মৃত্যু হয়েছে। মোটরসাইকেলে ঘুরাঘুরি শেষে বাড়ি ফেরা হল না ব্যাংক কর্মকর্তা আবু বক্কর ছিদ্দিক ওরফে জামাল (৩৬)। ট্রাকের সাথে মোটর সাইকেল চাপায় লাগলে শুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষন করেন।

আজ রবিবার (২১ ফেব্রুয়ারি)  রাত ৮ টার  দিকে নেত্রকোণা -ময়মনসিংহ মহাসড়কের নেত্রকোণা শহরের  নাগড়া আনন্দ বাজার মোড় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় মোটর সাইকেল চালক সুমন কুমার সাহাকে (৩০) গুরুতর আহত অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

নিহত আবু বক্কর সিদ্দিক ওরফে জামাল নেত্রকোণা  সদর উপজেলার ঝাউসী গ্রামের রুহুল আমিনের ছেলে এবং নেত্রকোণা  পৌর শহরের নাগড়া মীর বাড়ি এলাকায় বসবাসত করতেন। নিহত জামাল সোনালী ব্যংক মদনপুর শাখার উর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং আহত সুমন সোনালী ব্যাংক নেত্রকোণা শাখার ক্যাশ অফিসার ও পৌরশহরের মোক্তারপাড়া এলাকার উজ্জল সাহার ছেলে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আবু বক্কর সিদ্দিক  ও সুমন কুমার সাহা দুজনের বিকেলে মোটর সাইকেলে করে বেড়াতে বের হয়েছিলেন। ঘোরাঘুরি শেষে বাসায় ফেরার পথে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে সুমনের মোটর সাইকেলের পেছনে জামাল বসা ছিলেন। তারা  নেত্রকোণা পৌর শহরের আনন্দ বাজার মোড় অতিক্রম করার পরপরই ময়মনসিংহগামী ট্রাকটি মোটরসাইকেলটিকে চাপা দেয়। এতে তারা দুজনই গুরুতর আহত হন।

স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে নেত্রকোণা  আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জামালকে মৃত ঘোষনা করেন এবং সুমন সাহাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

নেত্রকোণা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোরশেদা খাতুন এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ট্রাকটিকে আটক করা গেলেও চালক পলাতক রয়েছে। নিহতের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিকে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার