বিশ্বব্যাপী মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। এ ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে মন্ত্রিসভার বৈঠক করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বুধবার বৈঠকে করোনা সংক্রমণ রোধে নিদিষ্ট দুরত্ব বজায় রাখা হয় মন্ত্রিসভার সদস্যদের মধ্যে।

এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সারাবিশ্বে এরইমধ্যে ১৯ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছে। ভারতে আক্রান্ত হয়েছে অনেকে। তাই এ ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে ভারতে ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

বুধবার লকডাউনের প্রথম দিনেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মন্ত্রিসভার বৈঠক করেছেন। তবে অন্য সময়ের মতো পাশাপাশি বসে বৈঠক করেননি। বজায় রেখেছিলেন নিরাপদ দূরত্ব। নির্দিষ্ট দূরত্বে বসে মন্ত্রিসভার সদস্যরা বৈঠক করেছেন। খবর এনডিটিভি অনলাইনের।

করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকানোর এখন পর্যন্ত কার্যকর উপায় মনে করা হচ্ছে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার নীতি। দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সরকারি বাসভবনে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকেও এই নীতি মানা হয়। মন্ত্রিসভার সদস্যদের বসার চেয়ারগুলো নিরাপদ দূরত্বে রাখা হয়। পুরো বৈঠক এভাবেই চলে।

মন্ত্রিসভার বৈঠকের ছবি টুইট করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ লিখেছেন, এখন দরকার সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা। আমরা এটি নিশ্চিত করেছি।