নবীজির ব্যাঙ্গাত্মক কার্টুনের নিন্দা জানালো সৌদি আরব

Img

মহানবী (সাঃ) এর ব্যাঙ্গাত্মক কার্টুন প্রচারের নিন্দা জানিয়েছে সৌদি আরব। গত মঙ্গলবারে একটি লিখিত ঘোষণায় এই ব্যাপারে ঘোষণা দিয়েছে সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। সম্প্রতি ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয়ভাবে মহানবী (সাঃ) এর ব্যাঙ্গাত্মক কার্টুন প্রচারের প্রতিবাদে এই কর্মকাণ্ডের নিন্দা করে ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরব।

সৌদি আরবের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সৌদি প্রেস এজেন্সি এর মাধ্যমে একটি প্রজ্ঞাপনে জানিয়েছে, ইসলাম এর সাথে কোন প্রকার জঙ্গিবাদের সম্পর্ক নেই।

এই প্রজ্ঞাপনে আরো বলা হয়, “সৌদি আরব, মহানবী (সাঃ) এবং মহান আল্লাহর প্রেরিত যেকোন নবী ও রাসূলের ব্যাঙ্গাত্মক ও আক্রমনাত্মক কার্টুন এর তীব্র প্রতিবাদ জানায়। এছাড়াও যেকোন প্রকার জঙ্গিবাদমূলক কার্যক্রম এর জন্য কেবলমাত্র ওই ব্যক্তিই দায়ী, এবং ইসলাম কোনপ্রকার জঙ্গিবাদ সমর্থন করে না।”

“বাক স্বাধীনতা এবং সংস্কৃতি হওয়া উচিত সম্মান, সহনশীলতা, এবং শান্তির মাধ্যম, এবং কখনোই কোনপ্রকার ঘৃণা ও উগ্রবাদ ছড়ানোর কাজে ব্যবহার হওয়া উচিত নয়। একসাথে পরস্পর এর প্রতি সম্মান রাখলেই সারা পৃথিবীর সকলে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করতে পারবে।”

সম্প্রতি ফ্রান্সে একটী জঙ্গি কর্মকান্ডের বিপরীতে রাষ্ট্রীয়ভাবে মহানবী (সাঃ) এর ব্যাঙ্গাত্মক কার্টুন প্রকাশ ও প্রচার করেছে ফরাসি সরকার। সারাবিশ্বের মুসলিম ধর্মালম্বীরা এই কর্মকান্ডের প্রতিবাদ জানিয়েছে, এবং সৌদি আরবও রাষ্ট্রীয়ভাবে এই কর্মকান্ডের নিন্দা জ্ঞাপন করেছে।

পূর্ববর্তী সংবাদ

মেহেরপুরে হত্যা মামলায় আটজনের যাবজ্জীবন

মেহেরপুরে আবুবক্কর শাহ নামে এক কৃষককে কুপিয়ে হত্যার দায়ে আটজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছে আদালত।

বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে মেহেরপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক এসএম আ. সালাম এ রায় দেন।

জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সরকারি কৌঁসুলি পিপি পল্লব ভট্টাচার্য্য জানান, ২০১০ সালের ১৪ জুন গাংনী উপজেলার করমদী গ্রামে কৃষক আবু বক্কর শাহ মাঠে কৃষিকাজ করতে যাওয়ার সময় তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে শাহাবুদ্দিন বাদী হয়ে গাংনী থানায় ১১ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন। এর মধ্যে দুজন মারা গেছেন ও একজনকে খালাস দেয়া হয়েছে।

মামলাটির দীর্ঘ শুনানির পর আজ মেহেরপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক এসএম আ. সালাম আট আসামির যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ প্রদান করেন। অভিযুক্ত আসামি এনামুল হক, জাহিদুল ইসলাম, আব্দুল বারী, রমজান আলী, মোহাম্মদ আলী, সিরাজুল ইসলাম, আলতাফ হোসেন, মিন্টু ইসলামের বিরুদ্ধে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক মাসের জেল রায় প্রদান করেছেন।

প্রতিক্রিয়া মন্তব্য শেয়ার